Scores

চায়না মোবাইলের বিজ্ঞাপনে ধোনি, সমালোচনায় উত্তাল টুইটার

চুক্তি অনুযায়ী ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৩তম আসরে টাইটেল স্পন্সর হিসেবে যুক্ত থাকার কথা ছিল মুঠোফোন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ভিভোর। কিন্তু চীনের প্রতিষ্ঠান বলে চীন বিদ্বেষী ভারতীয়দের প্রবল চাপের মুখে পড়ে ভিভোকে স্পন্সরশিপ ছাড়তে হয়। এবার আইপিএল শুরুর আগে আরেক চায়না মুঠোফোন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হয়েছেন ধোনি। সেই প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে অংশ নেওয়ায় স্বভাবতই চলছে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের মুণ্ডুপাত।

বাংলাদেশের ধাক্কাই বদলে দিয়েছিল ধোনিকে

ভিভোর মত অপ্পোও মুঠোফোন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিশ্বজোড়া খ্যাতি অর্জন করেছে। স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানটি ব্র্যান্ড অ্যাম্বে‌সেডর বা পণ্যদূত হিসেবে বেছে নেয় বিশ্বসেরা তারকাদের। এরই ধারাবাহিকতায় ভারতের সাবেক অধিনায়ক ধোনিকে অপ্পো পণ্যদূত হিসেবে নিযুক্ত করেছে।

Also Read - শ্রীলঙ্কা নয়, ভেট্টোরি ও ম্যাকমিলান আসবেন বাংলাদেশে






তবে সীমান্তের বৈরিতার পর চীনের উপর নাখোশ ভারতীয়রা ধোনির এই চুক্তি মেনে নিতে পারেননি। টুইটারে প্রিয় ‘মাহি’কে তুলধুনো করতে মোটেও পিছপা হচ্ছেন না ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকরাও। ধোনির মত জাতীয় আইকন অর্থের কাছে জাতীয়তাবোধ বিক্রি করে দিয়েছেন বলেও মন্তব্য করেছেন অনেকে।

ধোনি অবশ্য অপ্পোর সাথে চুক্তিবদ্ধ হতে পেরে উচ্ছ্বাসই প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘অপ্পোর সাথে যুক্ত হওয়া দারুণ অনুভূতি। মানুষকে উদ্দীপ্ত করার কাজে যুক্ত হতে পেরে আমি খুশি।’ যদিও ধোনি নিজ দেশের মানুষের কতটা উদ্দীপ্ত করতে পেরেছেন তা বড় প্রশ্ন বটে। দীর্ঘদিন পর আইপিএল দিয়ে মাঠে নামার আগে সবাই যখন ধোনি-বন্দনায় মেতে থাকার কথা, তখন যে উল্টো ধোনিকে দুয়ো শুনতে হচ্ছে!





বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

১২০ দেশে দেখা যাবে আইপিএল, তালিকায় নেই পাকিস্তান-চীন

চীনা নয়, নিজেদের ভারতীয় দাবি ড্রিম ইলেভেনের

ড্রিম ইলেভেনেও চীনের মালিকানা, ক্ষেপেছেন ভারতীয়রা

স্পন্সর নিয়ে ভারতীয়রাই উপহাস করছে আইপিএলকে

লোকসানের শঙ্কা নিয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে বিসিসিআই