Scores

চ্যাপেলকে নিয়ে হরভজনের বিদ্রুপ

ফেইসবুকের এক সেশনে এসে  ভারতের মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ফিনিশার বানানোর পেছনে নিজের ভূমিকা শুনিয়েছে ভারতের সাবেক কোচ এবং সাবেক অজি অধিনায়ক গ্রেগ চ্যাপেল। তার প্রতিক্রিয়াতেই টুইটারে বিদ্রুপ করেছেন স্পিনার হরভজন সিং।

হরভজনের তোপের মুখে চ্যাপেল

Also Read - অধিনায়কত্বে 'কঠিন' কী, তামিমের প্রশ্নে ডু প্লেসির জবাব


চ্যাপেল জানান ধোনির ব্যাটিং দেখে তাকে সেই সময়ের সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটসম্যান মনে হয় তার। মূলত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার ১৪৫ বলে  ১৮৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস নজর কাড়ে চ্যাপেলের।

চ্যাপেল বলেন, “আমি তাদের সাথে কথা বলেছিলাম। আমাদের শ্রীলঙ্কার সাথে ঘরের মাঠে সিরিজ ছিল। সে একটা ম্যাচে ১৮০ (আদতে ১৮৩) রান করল। সে অনেকগুলো চার আর ছক্কা মেরেছিল। পরের ম্যাচ ছিল পুনেতে এবং আমার মনে আছে আমি তার সাথে তার সক্ষমতা নিয়ে কথা বলেছিলাম। আমার মনে হয়েছিল, ক্যারিয়ারটা যদি শুধু চার-ছক্কা মারার চেষ্টায় যায় তাহলে ক্রিকেটে তার যা অর্জন করা উচিত সেটা নাও করতে পারে।”  

তেড়েফুঁড়ে ব্যাটিং করা ধোনিকে শান্ত মেজাজে খেলার পরামর্শ দেন চ্যাপেল। তিনি বলেন, “তার মাটিতে বল মারা শিখতে পারাটা নিয়ে আমি কথা বলেছিলাম। সে বাউন্ডারি হাঁকানোতে পটু ছিল কিন্তু  তারপরেও সেটা অনেক ঝুঁকির। সে এই ঝুঁকিটা কমিয়ে আনতে পারলে  বিশ্বের সেরা ফিনিশারদের একজন হতে পারবে (এমন কথা হয়েছিল)।”

“আমার মনে আছে পুনের ম্যাচটির কথা। ধোনি যখন মাঠে নামে তখন ৮০-১০০ রান লাগে। আমি তাকে ম্যাচ শেষ করে আসার চ্যালেঞ্জ দিলাম। বলে দিলাম ম্যাচ জেতার আগ পর্যন্ত উড়িয়ে কোনো বল মারবে না। সে চ্যালেঞ্জটা নিল ইনিংসের মাঝে দ্বাদশ ক্রিকেটার আরপি সিং এসে আমাকে জিজ্ঞাসা করল ধোনি জানতে চেয়েছে এখন কি উড়িয়ে মারতে পারবে কিনা। তখনো জিততে ২০ রান প্রয়োজন ছিল। আমি  আরপিকে বলি ফিরে গিয়ে এই জবাব দিতে যে ম্যাচ জিতেই সে বল উড়িয়ে মারতে পারব,” যোগ করেন চ্যাপেল।

সেই ম্যাচটি ছক্কা মেরে জিতিয়েছিলেন ধোনি। চ্যাপেলের এমন স্মৃতি রোমন্থনের পর টুইটারে হরভজন লিখেন, “ধোনিকে মাটিতে খেলতে বলা হয়েছিল কারণ কোচ সবাইকে মাঠের বাইরে নিয়ে ফেলছিল। সে অন্য এক খেলা খেলছিল।” হ্যাশট্যাগে চ্যাপেলের কোচিংয়ের দিনগুলোকে ভারতের ক্রিকেটের সবচেয়ে বাজে দিন হিসেবেও আখ্যা দেন ভাজ্জি।


চ্যাপেলের অধীনে ভারত টানা ১৭ টি ম্যাচ তাড়া করে জিতে। তবে তিনি কোচ থাকাকালীন অধিনায়কত্ব হারান এবং দল থেকে বাদ পড়েন সৌরভ গাঙ্গুলী। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটপাড়ায় বেশ বিতর্কিত ছিলেন চ্যাপেল। সৌরভকে বাদ দেওয়া নিয়েও তখন মুখ খুলেছিলেন হরভজন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

দলীয় বিভাজনে ২০০৭ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে হারে ভারত

ক্রিকেট জীবনের ইতি টানলেন চ্যাপেল

চ্যাপেল-রিচার্ডসদের রেকর্ডে ভাগ বসালেন সাকিব