Scores

ছক্কা মেরে আফ্রিদিকে বল কুড়িয়ে আনতে বলেছিলেন নাসির

ঘরোয়া ক্রিকেটে যিনি বা যারা নাসির হোসেনের প্রতিপক্ষ থাকেন- তারাই বোঝেন স্লেজিংয়ের কি জ্বালা! সেই নাসির অবশ্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্লেজিং করা থেকে বিরত থাকেন। তবে মাঠেই নাসিরের সাথে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইরন পোলার্ডের দুটি ‘কথা চালাচালি’র ঘটনা রয়েছে।

ছক্কা মেরে আফ্রিদিকে বল কুড়িয়ে আনতে বলেছিলেন নাসির

সেই দুই ঘটনা ও স্লেজিং নিয়ে বিডিক্রিকটাইম এর লাইভ আড্ডায় মুখ খুলেছেন নাসির। তিনি জানান, ২০১১ সালে পাকিস্তানের বাংলাদেশ সফরে আফ্রিদির সাথে তার ঠিক তর্ক হয়নি, তবে আফ্রিদির মেজাজ বিগড়ে দিয়েছিলেন ছক্কা হাঁকিয়ে।

Also Read - সাকিবের প্রতিটি কথাই সতীর্থদের কাছে 'মূল্যবান'






নাসির বলেন-

‘আমার বাসার সবাই পাকিস্তানের খেলা দেখে, পাকিস্তান দলকে সবাই খুব পছন্দ করত। আফ্রিদির সাথে সেদিন তেমন কিছু হয়নি। আমাকে সে কিছু একটা বলেছিল, ঠিক মনে পড়ছে না। এরপর আমি ওর বলে ছক্কা মেরেছিলাম। এরপর বলেছিলাম- যাও বল কুড়িয়ে নিয়ে এসো। আর তেমন কিছু হয়নি।’

২০১২ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এসেছিল বাংলাদেশ সফরে। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের পঞ্চম, শেষ ও সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে পোলার্ড নাসিরের সামনে এসে মাংসপেশি প্রদর্শন করেছিলেন। আসলে কী হয়েছিল তখন?






নাসির খোলাসা করলেন সেই ঘটনাও, ‘খেলা খুব রোমাঞ্চকর পর্যায়ে ছিল। খুব বেশি রান আমাদের তাড়া করতে হত না, কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজের অল্প কিছু উইকেট দরকার ছিল। আমি আর সৌরভ (বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক) একটা পার্টনারশিপ গড়েছিলাম, শেষদিকে সোহাগ গাজির সাথে। পোলার্ড আমাকে বলছিল- ছক্কা মারো, ছক্কা মারো। কোনোভাবে আমার মনোযোগ নষ্ট করার চেষ্টা করছিল। কভার অঞ্চল দেখিয়ে বলছিল- ছক্কা মারো, তোমার গায়ে শক্তি আছে। আমি ওকে বুঝালাম- আমার গায়ে শক্তি নেই, আমি এখন ছক্কা মারতে চাই না।’– বলেন তিনি।

ঘরোয়া ক্রিকেটে স্লেজিংয়ে পটু হলেও নাসির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্লেজিং করেন না। কেন করেন না, এমন প্রশ্নের জবাবে তার ভাষ্য, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেভাবে স্লেজিং করা হয় না। কারণ ক্যামেরা থাকে, মাইক্রোফোন থাকে। চাইলেও তাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্লেজিং করা যায় না। তারপরও টুকটাক করা হয়, একেবারে যে করি না তা না। তবে সেটা ক্রিকেটীয় ভাষায় যতটুকু বলা যায়। ব্যাটসম্যান ভয় পাচ্ছে আমাদের বোলারদের, এমন কিছু কথাবার্তা নিজেরা বলি। কিন্তু বাজে কথাবার্তা বলি না।’

প্রতিপক্ষ হিসেবে ভারত সবচেয়ে বাজেভাবে স্লেজিং করে জানিয়ে নাসির আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে সিরিজ খেলছিলাম (২০১৪ সালে)। ভারতের খেলোয়াড়রা আমাকে গালাগালি করছিল। শুধু আমাকেই না, যারা ব্যাটিংয়ে নামছিল সবাইকেই আজেবাজে কথাবার্তা বলছিল।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

“লিটনের ব্যাটিং এত সুন্দর, দেখতেই থাকি”

সাকিবের প্রতিটি কথাই সতীর্থদের কাছে ‘মূল্যবান’

বাংলাদেশ দলে একজন শেন ওয়ার্নের আক্ষেপ নাসিরের

জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে নাসিরের ভাবনা

ওয়ার্নার যোদ্ধা, গেইল থেকে শেখার কিছু নেই: নাসির