ছবিতে ছবিতে বিসিবি একাদশ বনাম উইন্ডিজ প্রস্তুতি ম্যাচ

0
1314

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের মূল লড়াইয়ের আগে একমাত্র প্রস্তুই ম্যাচে ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে সফরকারী উইন্ডিজকে ৫১ রানের ব্যবধানে হারিয়ে নিজেদের প্রস্তুতি সম্পন্ন করলো বিসিবি একাদশ।

বিকেএসপিতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে শাই হোপের ৭৮ ও চেজের অপরাজিত ঝড়ো গতির ৬৫ রানে চড়ে ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেটে ৩৩১ রানের পুঁজি পায় সফরকারীরা। পাহাড়সম রান তাড়া করে জিততে হবে এমন সমীকরণে বাংলাদেশকে শুরুতে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন তামিম ইকবাল। তার অনবদ্য ১০৭ রানের পর সৌম্য সরকারের অপরাজিত ১০৩ রানের ইনিংসে জয় নিশ্চিত হয় স্বাগতিকদের। আলোক-স্বল্পতায়  বিসিবি একাদশের ৪১ ওভারের পর আর মাঠে খেলা না গড়ালে ডি/এল মেথডে ম্যাচের ফলাফল নির্ধারিত হয়।

Advertisment

ছবিতে ছবিতে দেখে নেওয়া যাক আজকের ম্যাচের উল্লেখযোগ্য কিছু মুহূর্ত-

 

তামিম-সৌম্যর শতকে বিসিবি একাদশের দুর্দান্ত জয়
তামিমের পাশাপাশি ম্যাচে শতক হাঁকান সৌম্য। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দুজনে যোগ করেন ১১৪ রান।

 

তামিমের পর শতকের দেখা পেলেন সৌম্যও।
ম্যাচে সর্বোচ্চ ৬ ছক্কা হাঁকান সৌম্য সরকার।

 

শতক হাঁকানোর পথে ১৩ চার আর ৪ ছক্কা হাঁকান তামিম।
শতক হাঁকানোর পথে ১৩ চার আর ৪ ছক্কা হাঁকান তামিম।

 

২২ গজে ফিরেই তামিম ঝলক।
২২ গজে ফিরেই ব্যাট হাতে ঝলক দেখান তামিম। ম্যাচে খেলেন সর্বোচ্চ ১৭টি বাউন্ডারির মার।

 

শতকের পর সৌম্যর উদযাপন।
শতকের পর সৌম্যর উদযাপন।

 

৬১ রান খরচায় গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট শিকার করেছেন অপু।
বল হাতে ৬১ রান খরচায় গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট শিকার করেছেন অপু।

 

বিসিবি একাদশের বিপক্ষে উইন্ডিজের রান পাহাড়।
এর আগে উদ্বোধনী জুটিতে ১০১ রান যোগ করেন কাইরন পাওয়েল ও শাই হোপ।

 

হোপের মারা শটে আঘাত পাওয়া স্বত্বেও খেলা চালিয়ে যান পাওয়েল।
হোপের মারা শটে আঘাত পাওয়া স্বত্বেও খেলা চালিয়ে যান পাওয়েল।

 

পাওয়েলের ক্যাচ নেওয়ার পর সতীর্থদদের সাথে ইমরুল কায়েসের উদযাপন।
পাওয়েলের ক্যাচ নেওয়ার পর সতীর্থদের সাথে ইমরুল কায়েসের উদযাপন।

 

টসের সময় দু'দলের অধিনায়কদ্বয়।
প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশকে নেতৃত্ব দেন রুবেল হোসেন।

 

২ চারের পাশাপাশি এক ছক্কায় ২২ রানে অপরাজিত থাকেন মাশরাফি।
২ চারের পাশাপাশি এক ছক্কায় ২২ রানে অপরাজিত থাকেন মাশরাফি।

 

স্কোরকার্ড-
উইন্ডিজ: ৩৩১/৮ (৫০ ওভার)
পাওয়েল ৪৩(৪৮), হোপ ৭৮(৮৪), ব্রাভো ২৭(৩৩), স্যামুয়েলস ৫(১২), হেটমায়ার ৩৩(২৭), পাওয়েল ০(৫), চেজ ৬৫*, অ্যালেন ৪৮, রুবেল ১০-০-৫৫-২, মাশরাফি ৮-১-৩৭-১, রানা ১০-০-৬৫-১, শাহিন ২-০-১৮-০, সৌম্য ৮-০-৭২-০, অপু ১০-০-৬১-২, শামীম ২-০-১৬-১।

বিসিবি একাদশ: ৩১৪/৬ (৪১ ওভার)
তামিম ১০৭(৭৩), কায়েস ২৫(২৭), সৌম্য ১০৩(৮৩)*, মিঠুন ৫(১৪), আরিফুল ২১(১৮), হৃদয় ০(৫), শামিম ৯(১২), মাশরাফি ২২(১৮)*; চেজ ৫৭/২।

ফলাফল: বিসিবি একাদশ ডি/এল মেথডে ৫১ রানে বিজয়ী।