SCORE

সর্বশেষ

ছিটকে গেলেন ওকস এবং স্টোকস

ইনজুরির কারণে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চলমান ওয়ানডে সিরিজের বাকি ম্যাচগুলো থেকে ছিটকে পড়েছেন দুই ইংলিশ ক্রিকেটার ক্রিস ওকস ও বেন স্টোকস। সোমবার ইংলিশ ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, চোট আক্রান্ত এই দুই ক্রিকেটার অস্ট্রেলিয়া সিরিজের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম ওয়ানডে ম্যাচেও মাঠে নামতে পারবেন না।

ছিটকে গেলেন ওকস-স্টোকস
বেন স্টোকস ও ক্রিস ওকস। ছবিঃ সংগৃহীত

ইনজুরির কারণে ওকস এবং স্টোকস খেলতে পারেননি সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডেতেও। হেডিংলিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট শেষে ইনজুরি আক্রান্ত হন দুজনই। স্টোকস ভুগছেন বাম পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে, আর ওকসের চোট ডান হাতের মাসলে।

এর মধ্যে ওকসের চোটই বেশি গুরুতর। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে এই পেসার কবে ফিরবেন মাঠে তা এখনও নিশ্চিত না হলেও অন্তত ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ পর্যন্ত দলের বাইরে থাকতে হবে তাকে। ১২ জুলাই শুরু হয়ে ভারত-ইংল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজ শেষ হবে ১৭ জুলাই। শুধু মাসলের ইনজুরিই নয়, ওকসকে কিছুটা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে হাঁটুর ইনজুরির কারণেও। হাঁটুর চোট সারাতে সোমবার একটি ইনজেকশন দেওয়া হয় তাকে। বর্তমানে দুই ইনজুরি থেকে সেরে উঠতে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে তাকে।

Also Read - বাদ পড়লেন তাহির-মরিস

অন্যদিকে স্টোকস চোট পান লিডসে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের জন্য অনুশীলনের সময়। তবে চোট অনেকটাই কাটিয়ে উঠেছেন স্টোকস। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে আর অংশ নেওয়া না হলেও বর্তমানে ৯০ শতাংশ সক্ষমতা নিয়ে দৌড়াতে পারছেন এবং সেই সাথে ব্যাটিংও করতে পারছেন এই আলোচিত অলরাউন্ডার। এই সপ্তাহেই স্টোকস শুরু করবেন বোলিং অনুশীলন। ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের বাকি তিন ম্যাচের সময়টায় তিনি ব্যস্ত থাকবেন চোট পুনর্বাসন কার্যক্রমে। আর ফিট হয়ে উঠলে আগামী মাসের শুরুতে অংশ নেবেন ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে।

উল্লেখ্য, প্রথম দুই ম্যাচ জিতে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে ইংল্যান্ড।

আরও পড়ুনঃ যেভাবে উন্মোচিত হল লঙ্কানদের বল টেম্পারিং

Related Articles

ব্যানক্রফটের নতুন ‘ঘর’

পাপন কিংবা সাকিব নন, তারিখ জানাবেন হোয়ে

ইংল্যান্ডের সর্বকালের সেরা একাদশ ঘোষণা

সিরিজ জিতেও রেটিং হারাল বাংলাদেশ

‘বল টেম্পারিংয়ের ভিডিও এডিটেড ছিল’