ছয় বলে পাঁচ উইকেট নিয়ে আল-আমিনের পাশে ভারতের মিঠুন

শুক্রবার  সৈয়দ মুশতাক আলি ট্রফির ম্যাচে হরিয়ানার বিপক্ষে কর্ণাটকের হয়ে হ্যাটট্রিক করেন ভারতের অভিমান্যু মিঠুন। ডানহাতি এ মিডিয়াম পেসার ঐ ওভারেই নিয়েছেন পাঁচ উইকেট। টি-২০ ক্রিকেতে এর আগে এক ওভার পাঁচ উইকেট শিকারের কীর্তি ছিল বাংলাদেশের ডানহাতি পেসার আল-আমিনে হোসেনের।

ছয় বল পাঁচ উইকেট নিয়ে আল-আমিনের পাশে ভারতের মিঠুন

ইনিংসের শেষ ওভারে পাঁচ উইকেট নেন মিঠুন। ওভারের প্রথম বলে হিমাংশু রানার উইকেট নেন মিঠুন। ৩৪ বলে ৬১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে ফিরেন রানা। পরের বলে ২০ বলে ৩২ রান করা রাহুল তেওয়াতিয়া ফিরেন করুণ নায়েরের হাতে ক্যাচ দেন। পরের বলে সুমিত কুমারকে ফিরিয়ে দিয়ে হ্যাটট্রিক করেন মিঠুন। পরের বলে তুলে নেন অমিত মিশ্রর উইকেট। পঞ্চম বলে উইকেট পাননি মিঠুন। শেষ বলে তুলে নেন জয়ন্ত যাদবের উইকেট। ৩৯ রানে ৫ উইকেট নেন মিঠুন।

Also Read - সরোয়ারকে ভিন্ন ভূমিকায় দিয়ে বিদেশি কোচ আনল সিলেট


তবে ওপেনার চৈতন্য বিষ্ণই এর অর্ধশতক আর রানার দুর্দান্ত ব্যাটিং আগেই দলকে বড় স্কোর এনে দেয়। অবশ্য ১৯৪ রানের পুঁজি নিয়েও পাত্তা পায়নি হরিয়ানা। ১৯৫ রানের লক্ষ্য ৩০ বল আর ৮ উইকেট হাতে রেখেই টপকে যায় কর্ণাটক। ৩১ বলে ৬৬ রান করেন ওপেনার লোকেশ রাহুল।  তার সঙ্গী দেবদূত পাদ্দিকাল করেন ৪২ বলেন ৮৭ রান। তিন নম্বরে নেমে মায়াঙ্ক আগারওয়াল অপরাজিত থাকেন ১৪ বলে ৩০ রান করে।

এর আগে বল হাতে এ কীর্তি গড়েছিলেন আল-আমিন হোসেন। ২০১৩ সালে বিজয় দিবস টি-২০ কাপে এক ওভারেই পাঁচ উইকেট নেন আল-আমিন হোসেন। ইউসিবি বিসিবি একাদশের হয়ে আবাহনীর বিপক্ষে ঐ ম্যাচে ৪ ওভারে ১৭ রানে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন আলা-আমিন। ইনিংসের শেষ ওভারে তিনি ফিরিয়েছিলেন  নাজমুল হোসেন মিলন,  মেহেদী মারুফ, সোহরাওয়ার্দী শুভ, নাঈম ইসলাম জুনিয়র, নাবিল সামাদ আর শুভাশিষ রয়কে।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন