Scores

জাতীয় দলে ফিরতে মরিয়া জিয়া

জাতীয় দলের হয়ে জিয়াউর রহমান সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১৩ সালের এপ্রিলে, ঠিক চার বছর আগে। দীর্ঘ এই সময়ে অনেক চেষ্টা করেও দলে ফিরতে পারেননি হার্ডহিটার এই ক্রিকেটার।

তবে ১টি টেস্ট, ১৩টি ওয়ানডে ও ১৪টি টি২০ খেলা এই ক্রিকেটার জাতীয় দলে ফিরতে মরিয়া হয়ে আছেন। বুধবার প্রিমিয়ার লীগে তার ৫৭ বলে করা ৭৩ রানের ইনিংসে ভর করে আবাহনীর বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নেয় শেখ জামাল। ম্যাচ শেষে জিয়া কথা বলেন সাংবাদিকদের সাথে। সেখানেই জানান, জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার জন্য কতটা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি।

Also Read - "টেস্ট দল থেকে বাদ পড়েছি বলে মারা যাবো না"


ফর্মে থাকা জিয়া দ্রুত জাতীয় দলে ফেরার ব্যাপারে আশাবাদী। তিনি বলেন, আমি এখনও স্বপ্ন দেখি। এখন আমি যেভাবে ব্যাট করছি, আশা করি জাতীয় দলে ফিরতে পারবো।

 


আরও পড়ুনঃ “টেস্ট দল থেকে বাদ পড়েছি বলে মারা যাবো না”


পেস বোলার হিসেবে স্বীকৃত ক্রিকেটে আবির্ভাব ঘটলেও জিয়া এখন নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে নিয়েছেন ব্যাটিং অলরাউন্ডার হিসেবে। এ ব্যাপারে তার ভাষ্য, ২০০৯ সালে বাংলাদেশ র হয়ে ভারত সফরকালে আমি ইনজুরিতে পড়ি। পরের দুই বছর আমি বল করতে পারিনি। তখন আমি আমার মনোযোগ ব্যাটিংয়ে ঢেলে দিই।

জিয়া আরও বলেন, সুজন ভাই (খালেদ মাহমুদ সুজন) আমার উপর বিশ্বাস রেখেছিলেন এবং আমাকে ব্যাটিং পারফরমেন্স প্রদর্শনের সুযোগ করে দিয়েছিলেন। এমনকি তিনি আমাকে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলার সুযোগও দিয়েছিলেন। আমি সেই সুযোগ কাজে লাগাতে সক্ষম হয়েছিলাম। ব্যাটিংই জাতীয় দলের জন্য আমাকে দরজা খোলে দিয়েছিল। তাই অবশ্যই আমি সুজন ভাইকে কৃতিত্ব দিবো আমার বর্তমান অবস্থানের জন্য।

তবে জাতীয় দলে জায়গা পেয়ে নিজেকে থিকভাবে মেলে ধরতে পারেননি জিয়া। ফলস্বরূপ দল থেকে বাদ পড়তে হয় তাকে। যদিও তিনি এখনও আশাবাদী বলে জানালেন সাংবাদিকদের, জাতীয় দলে সুযোগ পেয়ে আমি কাজে লাগাতে পারিনি। আমার আরও ভালো করা উচিত ছিল। তবে এখনও আমি হাল ছাড়িনি। জাতীয় দলে ফিরতে কঠোর চেষ্টা করছি আমি।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

লিটনের ফিফটি, রেজা ঝড়ে রাজশাহীর চ্যালেঞ্জিং স্কোর

বিপিএলে দল পেলেন জিয়া

জাতীয় লিগের শিরোপা পুনরুদ্ধার করল খুলনা

মানকাডিংয়ের সুযোগ ছাড়লেন আরাফাত সানি

ভিডিওঃ ২৯ বলে জিয়ার ৭২ রানের তান্ডব