জাম্পা-এগারের টোটকা নিয়ে ভালো ব্যাটিং করতে চান মার্শ

0
1578

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশি স্পিনারদের কাছে ধরাশয়ী হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানরা। তাই উপায়ন্তর মিচেল মার্শ নিজ দলের দুই স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা ও অ্যাস্টন এগারের কাছে পরামর্শ নিয়ে বাংলাদেশি স্পিনারদের সামলাতে চান।

জাম্পা-এগারের টোটকা নিয়ে ভালো ব্যাটিং করতে চান মার্শ

Advertisment

বাংলাদেশের তিন স্পিনারের আক্রমণে ২.১ ওভারেই ১১ রান্দ ৩টি উইকেট হারিয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া। অজিদের পক্ষে ব্যাট হাতে একাই লড়াই করেন মার্শ। তবে তার ৪৫ বলে ৪৫ রান দলকে জেতানোর জন্য পর্যাপ্ত ছিল না। স্পিনারদের বেশ দেখেশুনেই খেলেন মার্শ। তবুও শেষ পর্যন্ত বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদের শিকারে পরিণত হন।

বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া স্কোয়াডের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ফর্মের তুঙ্গে আছেন মার্শ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকেও তার ব্যাটে রানের ফোয়ারা ছুটছে। এই ফর্ম ধরে রাখতে তার এখন বাংলাদেশি স্পিনারদের সামলানো দরকার। আর এইজন্য তিনি দারস্থ হচ্ছেন সতীর্থ দুই স্পিনার জাম্পা ও এগারের।

প্রথম ম্যাচ শেষে ক্রিকেটডটকমডটএইউঈকে মার্শ বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ায় খেললে অনেক গতির বল মোকাবেলা করতে হয়, বিশেষ করতে পার্থে। ওখানে আপনি স্পিনকে দমন করে রেখে খেলতে পারবেন। কিন্তু এখানে (বাংলাদেশে) আমি নিজেকে এমনভাবে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছি যেন স্পিনের বিপক্ষে আরও বাউন্ডারি সংগ্রহ করতে পারি। আমার মনে হয়েছে ভালোই পেরেছি এবং এটি ধরে আরও ভালো করার আশা করছি।’

‘আমার আগে জাম্পা ও এগারের সাথে কথা বলা উচিত ছিল। তাদের থেকে পরামর্শ নেওয়া দরকার এবং তারপর দেখতে হবে আমার আরও কোথায় কোথায় ভালো করতে হবে। এখন আমি অবশ্যই তাদের কাছ থেকে আমি শিখব। বর্তমানে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের মধ্যে দুইজন তারা তাই তাদের কাছ থেকে না শেখাটা হবে বোকামি।’

প্রসঙ্গত, পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া হেরেছে ২৩ রানে। বাংলাদেশি স্পিনার নাসুম ৪টি, সাকিব আল হাসান ও শেখ মেহেদী হাসান ১টি করে উইকেট পান। দুই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম উইকেট পান ২টি করে।