জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে দিয়ে পাকিস্তানের সিরিজ নিশ্চিত

পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে উড়িয়েই দিয়েছে পাকিস্তান। দ্বিতীয় ম্যাচের মতো এ ম্যাচেও পাত্তা পায়নি স্বাগতিকরা। পাকিস্তানের ফাহিম আশরাফ গুড়িয়ে দিয়েছেন জিম্বাবুয়েকে।

ছবিঃ গেটি ইমেজেস

বুলাওয়েটে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে জিম্বাবুয়ে। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার প্রিন্স মাসাভুরেকে হারায় জিম্বাবুয়ে। উসমান খানের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন মসাভুরে। শুরু থেকেই মন্থর ছিল স্বাগতিকদের রানের চাকা। ১৮ রানের মাথায় ঘটে দ্বিতীয় উইকেটের পতন। জুনায়েদ খানের শিকার হন অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা (১০)।

Advertisment

নিজের পরের ওভারেই তারিসাই মুসাকান্দাকে ফিরিয়ে দেন জুনায়েদ খান। ২৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে জিম্বাবুয়ে। দলকে সেই বিপদ থেকে উদ্ধার করতে পারেননি কেউ। কোনো জুটিই হয়নি দীর্ঘস্থায়ী। মুসাকান্দার বিদায়ের পরের ওভারে ফিরে যান পিটার মুরও। তাকে ফেরত পাঠান ফাহিম আশরাফ।

এরপর ফাহিম আশরাফের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন চামু চিবাবা। ইনিংস সর্বোচ্চ ১৬ রান আসে তার ব্যাট থেকে। ৩২ রান তুলতেই অর্ধেক উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। নিজের পরের ওভারে আবারো আঘাত হানেন ফাহিম। এ পেসার ফেরত পাঠান এলটন চিগুম্বুরাকে। ৯ রান করেন তিনি। পরের অভয়ারে টেন্ডাই চিসোরোকে বোল্ড করেন ইয়াসির শাহ।

শেষদিকে ওয়েলিংটন মাসাকাদজার ১০ রানে ভর করে দলীয় ৫০ রান করে জিম্বাবুয়ে। মাত্র তিনজন ব্যাটসম্যান সক্ষম হন দুই অঙ্কের ঘরে স্কোর করতে। ৫৪ রানের মাথায় রায়ান মুরেকে ফেরান ফাহিম। দলীয় ৬৬ রানের মাথায় ব্লেসিং মুজারাবানি এলবিডব্লিউ হন শাদাব খানের বলে। রিচার্ড এনগ্রাভাকে ৬৭ রানের মাথায় ফিরিয়ে ইনিংসের ইতি টানেন ফাহিম। পাঁচ উইকেট পান এ ডানহাতি পেসার।

পাকিস্তানের লক্ষ্য ছিল অতি সামান্য। তবুও পা ফসকেছে শুরুতেই। ইনিংসের প্রথম বলে বিদায় নিয়েছেন ইমাম-উল-হক। এরপর আর কোনো সমস্যা হয়নি। ফখর জামান আর বাবর আজমের অবিচ্ছিন্ন ৬৯ রানের জুটি দলকে জয় এনে দেয়। ২৪ বলে ৪৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন ফখর। বাবরের ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ১৯ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

জিম্বাবুয়ে ৬৭/১০, ২৫.১ ওভার
চিবাবা ১৬, হ্যামিল্টন ১০, ওয়েলিংটন ১০*
ফাহিম ৫/২২, জুনায়েদ ২/৭

পাকিস্তান ৬৯/১, ৯.৫ ওভার
ফখর ৪৩*, বাবর ১৯*
মুজারাবানি ১/৪৩


আরো পড়ুনঃ ভারতের টেস্ট দলে পান্ট