Scores

জুনিয়র সাকিব পৌঁছাতে চান সাকিব আল হাসানের উচ্চতায়

শুধু নাম নয়, আরেকটু হলে পুরোপুরি মিলে যেত দুজনের ভূমিকাটাও। সাকিব আল হাসানের মত তানজিম হাসান সাকিবও তো অলরাউন্ডার। তবে জাতীয় দলের সাকিবের মত স্পিনার নন, যুব বিশ্বকাপজয়ী সাকিব একজন পেসার। তবে পেস বোলিং অলরাউন্ডার হয়েই তিনি পৌঁছাতে চান বিশ্বসেরা তকমা পাওয়া সাকিবের উচ্চতায়।

জুনিয়র সাকিব পৌছাতে চান সাকিব আল হাসানের উচ্চতায়

ডেল স্টেইন রোল মডেল হলেও বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জেতানো সাকিবের অনুপ্রেরণা সাকিব আল হাসান। সিলেটের তরুণ পেস বোলিং অলরাউন্ডার ক্রিকেট অঙ্গনে পরিচিত পেয়েছেন জুনিয়র সাকিব হিসেবে। নামের মিল রেখে জুনিয়র সাকিব পৌঁছাতে চান সিনিয়র সাকিবের উচ্চতায়।

Also Read - টেস্টের বিশ্বসেরা বোলার হতে চান সাকিব






তিনি বলেন, ‘ডেল স্টেইন আমার রোল মডেল হলেও সাকিব ভাই সবসময় আমার অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে। অনেকেই বলে- আমি যেন সাকিব ভাইয়ের ব্যাকআপ হিসেবে জাতীয় দলে যেতে পারি, সাকিব ভাইয়ের জায়গাটা যেন ভবিষ্যতে পূরণ করতে পারি। হয়ত সাকিব ভাইয়ের জায়গাটা পূরণ করতে পারব না, কিন্তু উনি সবসময়ই আমার জন্য অনুপ্রেরণা। উনার জায়গায় পৌঁছানোর স্বপ্ন দেখে আমি অনুশীলন চালিয়ে যাই।’

পেস বোলিং অলরাউন্ডার হয়ে ওঠা মুখের কথা নয়, অন্তত উপমহাদেশে। বাংলাদেশ কার্যকরী একজন পেস বোলার খুঁজছে দীর্ঘদিন ধরে। সাম্প্রতিক সময়ে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন আশার আলো দেখালেও তার লড়াইকে বাধাগ্রস্ত করছে চোট।






তানজিম হাসান সাকিব বলেন, ‘সত্যিকারের পেস বোলিং অলরাউন্ডার হওয়ার স্বপ্ন তো আছেই। ইংল্যান্ডের স্তম্ভ বলা যায় বেন স্টোকসকে। বোলিং দিয়ে ভালো কর‍তে না পারলে বোলিং দিয়ে পুষিয়ে দেয়, নাহলে ফিল্ডিং দিয়ে পুষিয়ে দেয়। আমি নিজেও চাই বাংলাদেশ এমন কাউকে পাক। সেই অনুযায়ী নিজেকে প্রস্তুত করার চেষ্টা করছি। জানি না কতটুকু সফল হব। কিন্তু আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি, যাতে আফসোস না থাকে।’

স্টোকসের মত সক্রিয় হয়ে সাকিবের উচ্চতায় উঠতে হলে বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাটিংয়েও শাণ দেওয়া প্রয়োজন। বিশ্বকাপে জুনিয়র সাকিবকে ব্যাট হাতে খুব একটা দেখা যায়নি। বোলিংয়েই বেশি মনোযোগ, তবে ব্যাটিং অনুশীলনটা চালিয়ে গেছেন নিয়মিতই।

তিনি বলেন, ‘বোলিং করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি এবং উপভোগ করি। এজন্য চাই বোলিংয়ে চেষ্টার কোনো কমতি যেন থাকে। সন্তোষজনক পারফরম্যান্সের জন্য বোলিংয়েই সবসময় জোর দেই। আমার ওয়ার্কআউটও মূলত বোলিং সংক্রান্তই। ব্যাটিংয়েও আমি মনোযোগী ছিলাম। কোচও বলেছিলেন যেন শেষের দিকে দলকে কিছু রান এনে দিতে পারি। এজন্য নিয়মিত অনুশীলনও করতাম। তবে বিশ্বকাপজুড়েই আমাদের ব্যাটসম্যানরা ভালো করেছে। ফাইনালের আগপর্যন্ত মূল ব্যাটসম্যানরাই ম্যাচ জিতিয়েছে। এ কারণে আমাদের এত খেলতে হয়নি।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

৪৫ ক্রিকেটারকে নিয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্যাম্প

স্টনিয়ারের সাথে চুক্তি বাড়ালো বিসিবি

“পতাকা ছুঁয়ে প্রতিজ্ঞা করেছিলাম- বিশ্বকাপ জিতবো”

“ভারতের সাথে যখনই দেখা হোক, কোনো ছাড় দেওয়া হবে না”

টেস্টের বিশ্বসেরা বোলার হতে চান সাকিব