Scores

জয়ের সুবাস পাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

কলম্বো টেস্টে তৃতীয় দিনশেষে জয়ের জন্য মাত্র পাঁচ উইকেট দরকার স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার। দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪৯০ রানের বিশাল লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়ে তৃতীয় দিনে ১৩৯ রানের বিনিময়ে পাঁচ তুলে নিয়েছে উইকেট।

জয়ের-সুবাস-পাচ্ছে-শ্রীলঙ্কা
ছবিঃএএফপি

৩ উইকেটে ১৪১ রান নিয়ে দিন শুরু করে শ্রীলঙ্কা। তৃতীয় দিন আরো ৪৮ রান যোগ করেন দিমুথ করুনারাত্নে ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। চতুর্থ উইকেটে তাদের ৬৩ রানের জুটি ভাঙেন লুঙ্গিসানি এনজিডি। শতকের পথে এগিয়ে যাচ্ছিলেন দিমুথ করুরাত্নে। এনজিডির বলে উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি ককের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান ৮৫ রান করে। তার ইনিংসে ছিল ১২ চার।

পঞ্চম উইকেটে রোশেন সিলভা ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস মিলে দলের লিডকে বড় করতে থাকেন। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও রোশেন সিলভা যোগ করেন ৬৪ রান। অর্ধশতক পূরণ করেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ৭ চারে ১৪৭ বলে ৭১ রান করে কেশব মহারাজের শিকার হন ম্যাথিউস। সেটি ছিল তার ম্যাচের ১২ তম উইকেট। এরপর নিরোশান ডিকভেলাকে নিয়ে ১২ রান যোগ করার পর ইনিংস ঘোষণা করে শ্রীলঙ্কা।

Also Read - যুবাদের বিশ্বকাপ জেতাতে চান নাভিদ


৫ উইকেটে ২৭৫ রান করে ইনিংস সমাপ্তির ঘোষণা দেয় স্বাগতিকরা। রোশেন সিলভা অপরাজিত থাকেন ৯৯ বলে ৩১ রান করে। দ্বিতীয় ইনিংসে তিন উইকেট শিকার করেন কেশব মহারাজ। ৪৮৯ রানের বিশাল লিড নেয় শ্রীলঙ্কা।

৪৯০ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা যথাযোগ্য হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকার। দলীয় ২৩ রানেরম আথায় নিজেদের প্রথম উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা। ওপেনার এইডেন মারক্রামকে এলবিডব্লিউ করেন রঙ্গনা হেরাথ। ১৪ রান করে সাজঘরে ফিরে যান এইডেন মারক্রাম। এরপর দৃঢ়তা দেখান ডিন এলগার এবং থিউইনিস ডি ব্রুইন। ৫৭ রানের জুটি গড়েন এলগার ও ডি ব্রুইন। ৩৭ রানের ইনিংস খেলে দিলরুয়ান পেরেরার বলে এলবিডব্লিউ হন এলগার।

দ্বিতীয় উইকেটের পতনের পর আবারও ভেঙে পরে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং অর্ডার। বেশিক্ষণ টিকেননি হাশিম আমলা। দলীয় ১০০ রানের মাথায়  ৬ রান করে বোল্ড হয়েছেন রঙ্গনা হেরাথের বলে। এরপর অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস টিকেছেন মাত্র ১৩ বল। ৭ রান করে ফিরে গিয়েছেন আকিলা ধনঞ্জয়ার বলে। ১১৩ রানের মাথায় ফাফ ডু প্লেসিস বিদায় নেয়ার পর নাইট ওয়াচম্যান হিসেবে ক্রিজে পাঠানো হয় কেশব মহারাজকে। কিন্তু কেশব মহারাজ তার দায়িত্ব পালন করতে পারেননি। নিজের প্রথম বলেই ফিরে যান মহারাজ। রানের খাতা খোলার আগেই আকিলা ধনঞ্জয়ার বলে আউট হন কেশব মহারাজ।

হ্যাট্রিকের সুযোগ পেলেও তা কাজে লাগাতে পারেননি আকিলা ধনঞ্জয়া। বাকিটা সময় নিরাপদে কাটান টেম্বা বাভুমা এবং থিউনিস ডি ব্রুইন। এক প্রান্ত আগলে রেখেছেন থিউনিস ডি ব্রুইন। ৪৫ রান করে অপরাজিত আছেন তিনি। অপর প্রান্তে টেম্বা বাভুমা অপরাজিত আছেন ১৪ রান করে। শ্রীলঙ্কার হয়ে দুইটি করে উইকেট শিকার করেছেন  রঙ্গনা হেরাথ এবং আকিলা ধনঞ্জয়া। একটি উইকেট নিয়েছেন দিলরুয়ান পেরেরা ।

তৃতীয় দিনশেষে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৩৯ রান। জয়ের জন্য পাঁচ উইকেটে আরো ৩৫১ রান চাই সফরকারীদের। এমন অবস্থায় দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। পরাজয়ের ব্যবধান কমানোই এখন প্রোটিয়াদের একমাত্র কাজ।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ৩৩৮ রান করেছিল লঙ্কানরা। এক ইনিংসে নয় উইকেট নেয়ার কীর্তি গড়েন কেশব মহারাজ। জবাবে মাত্র ১২৪ রান করে গুটিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস ৩৩৮/১০, ১০৪.১ ওভার
ডি সিলভা ৬০, গুনাথিলাকা ৫৭, করুনারাত্নে ৫৩
মহারাজ ৯/১২৯, রাবাদা ১/৫৫

দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ইনিংস ১২৪/১০, ৩৪.৫ ওভার
ফাফ ডু প্লেসিস ৪৮, ডি কক ৩২, আমলা ১৯
দিলরুয়ান পেরেরা ৪/৪০, ধনঞ্জয়া ৫/৫২

শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংস ২৭৫/৫, ডিক্লেয়ার্ড
করুনারাত্নে ৮৫, ম্যাথিউস ৭১, গুনাথিলাকা ৬১
মহারাজ ৩/১৫৪, এনজিডি ১/৯

দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বিতীয় ইনিংস ১৩৯/৫, ৪১ ওভার
ডি ব্রুইন ৪৫*, এলগার ৩৭, বাভুমা ১৪
ধনঞ্জয়া ২/৩৫, হেরাথ ২/৫৪


আরো পড়ুনঃ  নতুন রেকর্ড গড়ে সবার উপরে ফখর


 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ছয় মাসের মধ্যেই টি-টোয়েন্টি দলে ভারসাম্য আসবে!

বয়স নিয়ে সমালোচনাকারীদের নিয়ে ভাবেনই না রশিদ!

মিসবাহর দলে ব্রাত্য মালিক-হাফিজ!

র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রাখলেন দুই অস্ট্রেলিয়ান

একাধিক রেকর্ড দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করলেন স্মিথ