Scores

জয়ের সহজ সুযোগ হাতছাড়া ‘এ’ দলের

দ্বিতীয় আনঅফিসিয়াল ওয়ানডেতে জয়ের আশা জাগিয়েও হেরেছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। শেষ দিকে শরফুদ্দিন আশরাফের ১৭ বলের হার না মানা ৩৬ ও ফজল নাইজাইয়ের ৮ বলের ১৫ রানে চড়ে ৫ বল হাতে রেখেই ৪ উইকেটের জয় পায় সফরকারীরা।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে হারল বাংলাদেশ 'এ' দল।
৪০ ওভার পর্যন্ত ম্যাচ বেশ ভালোভাবেই ছিল বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে। শেষ ১০ ওভারে আফগানিস্তানের দরকার ছিল ১০০ রানের কাছাকাছি। জয়ের জন্য এমন সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেনি স্বাগতিক বোলাররা।

আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি হাতছাড়া করা ইব্রাহিম জাদরান আজ আর তা হাতছাড়া করেননি। ১৪৯ বলে ১২৭ রানের কাব্যিক ইনিংস খেলে দলের জয়ের পথ গড়ে দিয়ে যান তিনি। তার দেখানো পথে হেঁটে বাকি কাজটা সম্পন্ন করেন  আশরাফ ও ফজল।

স্বাগতিক বোলারদের শেষ ৫ ওভারে তুলোধুনো করে ৫৩ রান আদায় করে নেন তারা। আর এতে নিশ্চিত হয় সফরকারীদের জয়। শেষ পর্যন্ত ২ চার ও ৩ ছক্কায় অপরাজিত ৩৬ রান করেন আশরাফ। আর ফজল অপরাজিত থাকেন ১ চার ও ১ ছক্কায় ১৫ রানে।

৭চার ও ৭ ছক্কায় করা ১২৭ রানের ইনিংসের জন্য ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন ইব্রাহিম। স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে শফিউল সর্বোচ্চ দুটি উইকেট পেয়েছেন। তাছাড়া রনি, রাহী ও সাব্বির প্রত্যকের নামের পাশেই যুক্ত হয়েছে একটি করে উইকেট।

Also Read - ফাইনালের ভুল স্বীকার করলেন ধর্মসেনা তবে...


এর আগে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় আফগানিস্তান। সফরকারীদের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশকে শুচ সূচনা এনে দেন ইমরুল কায়েস ও এনামুল হক বিজয়। ৯ ওভারের মধ্যে স্কোরবোর্ডে ৫০ রান যোগ করেন তারা।

শুরু থেকে ভালো কিছু করার আভাস দিচ্ছিলেন বিজয়। তবে এ যাত্রায়ও বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ তিনি। ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৬ রান করে আউট হন তিনি। দলীয় ৫৬ রানে রাকে ফিরিয়ে সফরকারীদের প্রথম সাফল্য এনে দেন করিম জানাত। তারপর ক্রিজে আসেন মিঠুন।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে  যোগ করেন ৪২ রান। বড় ইনিংসের আভাস মিলছিল কায়েসের ব্যাট থেকেও। তবে আজও তা আর হয়ে ওঠেনি। শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত ৪০ রানে থামেন তিনি। ফজলের বলে লেগ-বিফোরের ফাঁদে পড়লে বাংলাদেশ হারায় দ্বিতীয় উইকেট।

দলীয় ৯৮ রানে ২ উইকেট হারানো বাংলাদেশকে এরপর পথ দেখান মিঠুন-নাইম জুটি। ৯৭ রান যোগ করেন তারা। এ উইকেট জুটিতে বাংলাদেশ পথ দেখে বড় সংগ্রহের। ৩ চার ও ২ ছক্কায় মিঠুন অর্ধশতক পূর্ণ করলেও মাইলফলক থেকে ১ রান দূরে থাকতে থামে নাইমের ইনিংস।

এর কিছুক্ষণ পর বিদায়ঘন্টা বাজে মিঠুনের। দুর্দান্ত খেলতে থাকা এ ক্রিকেটার আউট হন ব্যক্তিগত ৮৫ রানে। ৯৪ বল মোকাবেলায় ৫ চার ও ৪ ছক্কায় ইনিংস সাজান তিনি। তার বিদায়ের পর নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি আফিফ-রেজারা। যার ফলে বড় সংগ্রহের পথ থেকে ছিটকে যায় স্বাগতিকরা।

শেষদিকে সাব্বিরের ৩৫ রানের কল্যাণে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৭৮ রানের পুঁজি পায় বাংলাদেশ।

সফরকারী বোলারদের মধ্যে ৪৩ রান খরচায় সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন করিম জানাত।
সংক্ষিপ্ত স্কোর-

বাংলাদেশ ‘এ’ দল:৫০ ওভারে ২৭৮/৯
বিজয় ২৬ (২৪), কায়েস ৪০ (৫৫), মিঠুন ৮৫ (৯৪), নাইম ৪৯ (৫৭), সাব্বির ৩৫ (৩৮), আফিফ ৮ (১৪), রেজা ১ (২), মেহেদি ১০ (১১), রনি ৭*(৪), শফিউল ০ (১), রাহী ১* (১)।

আফগানিস্তান ‘এ’ দল: ৪৯.১ ওভারে ২৮১/৬
গুরবাজ ২১ (১৯), ইব্রাহিম ১২৭ (১৪৯), উসমান ২৬ (৪৪), নাসির ১১ (২১), ডরউইশ ৭ (১৪), করিম ২৪ (২৫), শরফুদ্দিন ৩৬* (১৭), ফজল ১৫* (৮), ; শফিউল ৯.২-১-৫৯-২, রাহী ১০-১-৫৮-১, রেজা ৪.৫-০-৪২-০, মেহেদি ১০-০-৩৪-০, রনি ১০-০-৫৬-১, আফিফ ৩-০-১৯-০, সাব্বির ২-০-১০-১।

ফল: আফগানিস্তান ‘এ’ দল ৪ উইকেটে জয়ী।


প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

রশিদকে সরিয়ে আফগানদের নেতৃত্বে আসগর

বিয়ের দাওয়াত না পেয়ে রশিদের ‘খোঁচা’

উড়ে গেলেন রশিদরা, বাংলাদেশের স্বস্তি

কর্নওয়েলের রেকর্ডে, অপেক্ষায় আরো বড় অর্জনের

বাংলাদেশকে লজ্জায় ফেলছেন না রশিদরা!