জয়-পরাজয় নির্ধারণে দু’টি ইনিংসই ডিক্লেয়ার!

পাঁচ দিনের একটি টেস্ট ম্যাচেকেও জয়-পরাজয় নির্ধারণ করতে কম ধকল যায় না। চারদিনের প্রথম শ্রেণির ম্যাচের ক্ষেত্রে সেটি তো আরও কঠিন। তার উপর বৃষ্টি এসে হানা দিলে তো কথাই নেই।

জয়-পরাজয় নির্ধারণে দু’টি ইনিংসই ডিক্লেয়ার!

তবে এবার বৃষ্টিকে তুড়ি মেরে অদ্ভুত এক পদ্ধতিতে চারদিনের ম্যাচে এসেছে জয়-পরাজয়। বৃষ্টির কারণে নষ্ট হওয়া সময় কাজে লাগাতে ম্যাচে দুই দলের একটি করে ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেওয়া হয়েছে! ঘটনা ঘটেছে নিউজিল্যান্ডের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট আসর প্ল্যাঙ্কেট শিল্ডে।

১০ অক্টোবর শুরু হওয়া এই ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল সেন্ট্রাল ডিসট্রিক্টস ও ক্যান্টারবুরি। ম্যাচের প্রথম দিন টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ৩০১ রান সংগ্রহ করে সেন্ট্রাল ডিসট্রিক্টস।

Also Read - কোন পজিশনে ব্যাট করবেন ফজলে রাব্বি?

৭ উইকেটে ৩০১ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন ইনিংস যতটুক সম্ভব বড় করা যাবে- এটিই হয়ত ছিল দলটির পরিকল্পনা। কিন্তু এমন বৃষ্টি শুরু হল যে ভেসে গেল ম্যাচের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিন। শেষদিনে এসে বাকি তিনটি ইনিংসের ব্যাপ্তি কোনোভাবেই আঁটবে না। তার উপর আরও কিছুক্ষণ ব্যাট করে ৩৫২ রান জড়ো করে সেন্ট্রাল ডিসট্রিক্টস। ফলাফল ড্র-ই অবশ্যম্ভাবী। কিন্তু দুই দলই চাচ্ছে ম্যাচে জয়-পরাজয় আসুক। এখন উপায়?

আলোচনায় বসেন দুই দলের অধিনায়ক ও ম্যানেজাররা। উভয় দল একটি করে ইনিংস না খেলেই ঘোষণা করে দেওয়ার প্রস্তাবে রাজি হয়। অবশেষে ক্যান্টারবুরি তাদের প্রথম ইনিংস এবং সেন্ট্রাল ডিসট্রিক্টস তাদের দ্বিতীয় ইনিংস ডিক্লেয়ার করে ফেলে ব্যাট হাতে মাঠে না নেমেই। এতে ৩৫৩ রানের লক্ষ্য দাঁড়ায় ক্যান্টারবুরির সামনে।

তবুও ছিল ড্রয়ের সম্ভাবনা। ম্যাচের মেজাজ বিচারে খেললে এই ম্যাচটা একটু চেষ্টা করলেই ড্র করতে পারত ক্যান্টারবুরি। কিন্তু দলটি খেলেছে জয়ের জন্যই। ফলে ৮৮ ওভার ব্যাট করে ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে এসে ক্যান্টারবুরি গুটিয়ে যায় ২০৭ রানে। এতে ১৪৫ রানের জয় পায় সেন্ট্রাল ডিসট্রিক্টস।

আরও পড়ুন: স্বাগতিকদের বিপক্ষে জয়ে শুরু ইংল্যান্ডের