টপ অর্ডারদের আউট করে হ্যাটট্রিক করতে চান তাসকিন

0
948

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করেন বাংলাদেশের বোলার তাসকিন আহমেদ। পরপর তিন বলে তিন লঙ্কান ব্যাটসম্যানকে মাঠ থেকে ফিরিয়ে দিয়ে শ্রীলঙ্কাকে অলআউট করে দেন তিনি। তবে অনেকের মতে শেষের দিকের ব্যাটসম্যানদেরকে আউট করাটা তুলনামূলকভাবে সহজই ছিলো। তাসকিন নিজেও অবশ্য চাচ্ছেন এবার টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের আউট করে হ্যাটট্রিক করে এই সমালোচনার জবাব দিতে।

Advertisment

তাসকিন বলেন, “আমার বলে আউট হওয়া চারজনের দুইজনই ছিলেন বেশ নামকরা ব্যাটসম্যান। আমার পারফরমেন্সকে ছোট করে দেখার কিছু নেই। হ্যাঁ আমি স্বীকার করি টপঅর্ডারের ব্যাটসম্যানদের তুলনায় শেষের দিকের ব্যাটসম্যানরা ভুল বেশি করে থাকে। কিন্তু হ্যাটট্রিক তো হ্যাটট্রিকই, পরপর ৩ বলে ৩ উইকেট! আশা করছি পরেরবার আমার হ্যাটট্রিকের শিকার হবেন টপঅর্ডারের ব্যাটসম্যানরা।”

অবশ্য তাসকিন নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম হ্যাটট্রিক তুলে নিয়ে নিজেকে বেশ ভাগ্যবান মনে করছেন। “আমি ভাগ্যবান কারণ শেষ ওয়ানডে ম্যাচটির আগেও আমি চারবার হ্যাটট্রিকের কাছে গিয়েও তিন নাম্বার উইকেটটি নিতে সক্ষম হইনি। এইবার অবশেষে আমার ক্যারিয়ারের ২৫ তম ওয়ানডে ম্যাচে আমার ভাগ্য সহায় ছিলো।”

তিনি বলেন, “সব বোলারেরই স্বপ্ন থাকে হ্যাটট্রিক পাওয়ার এবং আমিও ব্যতিক্রম নই। শেষ পর্যন্ত স্বপ্ন পূরণ হওয়ায় আমার অনেক ভালো লাগছে। অবশ্য বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি পরিত্যক্ত না হলে এবং আমরা জয়ের দেখা পেলে আরো বেশি ভালো লাগতো।”

ওয়ানডে নাকি টেস্ট, কোনটায় হ্যাটট্রিক করা সহজ – এই প্রশ্নের জবাবে ডানহাঁতি এই বোলার জবাব দেন, “ আমি ৪ টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছি কিন্তু কখনোই হ্যাটট্রিকের কাছাকাছিও যেতে পারি নাই। আসলে হ্যাটট্রিক করতে গেলে ভাগ্যেরও দরকার পড়ে – সেটা হোক টেস্ট বা ওয়ানডে। ভাগ্যের জোর, অন্যান্য খেলোয়াড়দের সাপোর্ট এবং ক্যাপ্টেনের বিশ্বাস ছাড়া কোনো বোলারই আসলে এই কৃতিত্ব অর্জন সম্ভব নয়।”

আরো পড়ুনঃ বিসিসিআইর বিরুদ্ধে মামলার হুমকি পিসিবির

ফ্রেয়া, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম.কম