টাইগারদের স্পন্সর হওয়ার লড়াইয়ে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান

0
28274
বাংলাদেশ দল
টাইগারদের স্পন্সর হওয়ার লড়াইয়ে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান ।

মুঠোফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান রবির সঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চুক্তি শেষ হবে আগামী জুনে। সে লক্ষ্যে চলতি মাসেই নতুন চুক্তির প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে বোর্ড। দুই বছর মেয়াদি এ স্পন্সর স্বত্ব নিলামের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ৬০ কোটি টাকা। ইতিমধ্যে গতকাল ২৯ এপ্রিল শেষ হয়েছে টাইগারদের স্পন্সর স্বত্ব নিলামের শিডিউল ক্রয় পর্ব।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের উচ্চপর্যায়ের এক নির্ভরশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে, দেশের চার-পাঁচটি অন্যতম শীর্ষ কর্পোরেট হাউজ বাংলাদেশের গর্ব জাতীয় ক্রিকেট দলের পরবর্তী স্পন্সর হতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আগ্রহী কর্পোরেট হাউজগুলোর মধ্যে ‘প্রাণ গ্রুপ’ অন্যতম। জানা গেছে, টিম বাংলাদেশের স্পন্সর হতে আগ্রহী প্রাণ গ্রুপ।

Advertisment

দেশপ্রসিদ্ধ এ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের কোনো বিশেষ প্রোডাক্ট বা ব্র্যান্ডের নামেই হয়তো জাতীয় দলের টিম স্পন্সরশিপ স্বত্ব কিনতে আগ্রহী প্রাণ গ্রুপ। এছাড়া গ্রামীণফোন এবং বর্তমান টিম স্পন্সর রবিও শিডিউল কিনেছে বলে জানা গেছে। এ তিন নামি কর্পোরেট হাউজের বাইরে মেঘনা গ্রুপের ‘ফ্রেশ’ আর বিকাশও জাতীয় দলের স্পন্সর হওয়ার প্রক্রিয়ায় নাম লিখিয়েছে।


আরও দেখুন- চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে অনিশ্চিত বেন স্টোকস!


এর আগে জাতীয় ক্রিকেট দলের স্পন্সর স্বত্বের জন্য ৬০ কোটি টাকার ভিত্তিমূল্য নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সম্প্রতি মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক কার্যনির্বাহী সভা শেষে এ তথ্য জানান বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৫ সালে দুই বছরের জন্য জাতীয় দলের স্পন্সর লাভ করে মিডিয়া এজেন্সি টপ অব মাইন্ড। সে সময় ভিত্তিমূল্য ছিল ৩০ কোটি টাকা। চূড়ান্ত দরপত্রে গ্রামীণফোনকে হারিয়ে ৪১ কোটি ৪১ লাখ টাকায় স্বত্ব পেয়েছিল টপ অব মাইন্ড। পরে টপ অব মাইন্ডের কাছ থেকে স্বত্ব কিনে নেয় রবি।

  • মাকসুদুল হক, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম।