Scores

টাকার জন্য ভারতের প্রশংসা করেন শোয়েব, টুইটারে নিন্দার ঝড়

বর্তমানে ইউটিউব অন্যতম জনপ্রিয় একটি সোশ্যাল মিডিয়া। ক্রিকেটাররাও এ থেকে দূরে থাকেন না। বিশেষ করে সাবেক ক্রিকেটাররা ক্রিকেট নিয়ে নিজেদের মতামত জানানোর জন্য বর্তমানে প্রথমেই বেছে নিচ্ছে ইউটিউবকে। পাকিস্তানি ক্রিকেটাররাও এর ব্যতিক্রম নন। পাকিস্তানের অনেক ক্রিকেটার বর্তমানে ইউটিউবে বেশ নিয়মিত ক্রিকেট বিশ্লেষণে। প্রায় নিত্য নিয়মিত একেকজন নতুন চ্যানেল খুলছেন ও শুরু করছেন নানান বিষয়ে বিশ্লেষণ। শোয়েব আখতার, ইনজামাম উল হক, দানেশ কানেরিয়া, রশিদ লতিফ ও শহীদ আফ্রিদি থেকে শুরু করে সকলেরই আছে ক্রিকেট বিশ্লেষণের চ্যানেল। তবে সম্প্রতি পাকিস্তানের সাধারণ ক্রিকেট ভক্তদের তোপের মুখে পরতে হয়েছে এই সাবেক ক্রিকেটারদেরই। বিশেষ করে শোয়েব আখতারের উপর যেনো রাগটা বেশিই।

পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা ভারতের দালাল, টুইটারে পাকিস্তানি ভক্তদের আক্রোশ
শোয়েব আখতার, ডা নোমান নিয়াজ, রশিদ লাতিফ ,।   শোয়েব আখতার ইউটিউব চ্যানেল

 

পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা ক্রিকেট নিয়ে আলোচনার জন্য চ্যানেল খুললেও দেখা যাচ্ছে এতে বেশিরভাগ সময় ভারতের আলোচনাই চলতে থাকে। অন্য কোন আন্তর্জাতিক দলের খেলার আলোচনা না থাকলেও ভারতের খেলা শেষ হতে না হতেই ভারতের খেলার বিশ্লেষণ নিয়ে হাজির হয়ে যান পাকিস্তানের সকল ইউটিউবার।

Also Read - নিরাপত্তা ইস্যু ছাপিয়ে দৃষ্টি ম্যাচ জয়ে


ভারতের খেলোয়াড়দের প্রশংসা, ভারতের কি করা উচিত বা না করা উচিত এই সব নিয়ে ভিডিও বানাতেই পাকিস্তানি ইউটিউবাররা ব্যস্ত। এমনকি শোয়েব আখতার পাকিস্তানের বাংলাদেশ সিরিজের দল নিয়েও কোন আলোচনা করেননি তবে ভারত অস্ট্রেলিয়া সিরিজ নিয়ে একের পর এক ভিডিও তৈরী করেছেন। শুধু শোয়েব আখতার নন, বাকিদেরও একই অবস্থা।

পাকিস্তানি ভক্তদের রাগ এখানেই। তাদের দাবি পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা ভারতের বিশাল জনসংখ্যাকে সন্তুষ্ট করে নিজেদের ইউটিউব চ্যানেল চালানোর জন্য এইসব করছেন। যেখানে পুলওয়ামা হামলার পর ভারতের ক্রিকবাজ পাকিস্তানের সকল খেলা বয়কট করে তাদের ওয়েবসাইটে সেখানে তাদের খেলোয়াড়রা দিন রাত কোহলি, রোহিতদের নিয়ে আলোচনা করে তাদের চ্যানেল চালান।

প্রশ্ন উঠেছে তারা যদি আসলেই ক্রিকেট আলোচক হয়ে থাকেন তাহলে কেনো ইংল্যান্ড দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ বা পাকিস্তানের ঘরোয়া খেলা নিয়ে কথা বলেন না? টুইটারে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের রীতিমতো ধুয়েই দিয়েছেন পাকিস্তানি ভক্তরা। এর মাঝে ৪ বছর পর ভারতের বিরেন্দর শেবাগের করা একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। তাতে দেখা যায় শেবাগ বলছেন “শোয়েব আখতার এখন ভারতের নিয়মিত প্রশংসা করে। সে আসলে তার আর্থিক সুবিধার জন্য এইসব করছে “।

এই রকম সমালোচনার পর বাকিরা চুপ থাকলেও চুপ থাকেননি শোয়েব। তিনি ইউটিউবে নতুন ভিডিওতে জানান ” আমার ভক্ত সব জায়গায় আছে। বিশ্বের সকল দেশে আমার ভক্ত আছে। পাকিস্তানের পর ভারতে আমার সবচাইতে বেশি ভক্ত।। বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা কোথায় আমার ভক্ত নেই? সেখানে আমার নাম শুনলে ট্রাফিক পর্যন্ত থেমে যায়। ভারতের প্রশংসা করা কি ভুল? ভারত কি বিশ্বের সেরা দল নয়? কোহলি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় নয়? আমার সমালোচকদের কথা আমি গুরুত্ব দিবোনা।টাকা দেওয়ার মালিক ভারত নয়, টাকা দেওয়ার মালিক আল্লাহ “। বিরেন্দর শেবাগকেও ধুয়ে দেন শোয়েব তার ভিডিওতে।

তবে এরপরও প্রশ্ন উঠেই যায় শোয়েব যদি আদৌ ক্রিকেট বিশ্লেষক হয়ে থাকেন তাহলে তিনি কোন শুধু পাকিস্তানের বাইরে ভারত নিয়েই ভিডিও বানান, পাকিস্তানি বাকি ইউটিবাররাও কেনো শুধু ভারতেই সীমাবদ্ধ থাকেন? টাকার নেশাই কি এখানে মূল কথা?

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

মাশরাফি বন্দনায় টুইটারে ঝড়

অশ্রাব্য শব্দ নিয়ে প্রশ্ন করায় সাংবাদিককে শাসালেন কোহলি

এশিয়া একাদশের স্কোয়াড নিয়ে টুইটারে সমালোচনার ঝড়

বাংলাদেশের জয়ে টুইটারে ঝড়

পাকিস্তানিদের টুইটে মুশফিকের তীব্র সমালোচনা, খোঁড়া যুক্তি