Score

টানা পাঁচ শতক হাঁকানো মিজানুরে নজর নির্বাচকদের

কয়েকদিনের মধ্যে শুরু হতে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে সিরিজ। এরপরই বাংলাদেশের বিপক্ষে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে আর তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলতে দেশে আসবে ক্যারিবিয়রা। তাই ব্যস্ত সিডিউল মাথায় রেখে দু একদিনের মধ্যে দল ঘোষণা করতে যাচ্ছে বিসিবি।

মিজানুর রহমান। (ফাইল ছবি)

কিন্তু প্রথম সারির খেলোয়াড়দের ইনজুরিতে দল নির্বাচনে কিছুটা বিপাকে পড়েছে তারা।  তবে এমন সুযোগে সাকিব, তামিমের মাঠের বাইরে থাকায় তাদের শূন্যতা পূরণে এবার পুরনোদের বদলে নতুন কাউকে দলে ভেড়ানোর দিকেই জোর দিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। এজন্য বেশ তোড়জোড়ও শুরু করেছে তারা।

নতুন মুখের সন্ধানে নির্বাচকেরা বিশেষ নজর রাখছেন জাতীয় লিগের দ্বিতীয় পর্বে।  মিজানুর রহমানের ব্যাটিং দেখতেতো সরাসরি রাজশাহী ছুটে গেছেন সংস্থাটির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।  মূলত ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে গত দুই মৌসুম ধরেই ক্রমাগত উর্ধ্বমূখী সাফল্যের দেখা পাচ্ছেন মিজানুর। জাতীয় লিগে সর্বশেষ পাঁচ ইনিংসেই করেছেন সেঞ্চুরি।  এজন্যই নির্বাচকদের নজর বিশেষভাবে কেড়েছেন মিজানুর।

Also Read - তিন সেঞ্চুরিতে ৫৮৯ রানে রাজশাহীর ইনিংস ঘোষণা

জাতীয় লিগের ম্যাচে মিজানুরের সেঞ্চুরি যেন নিত্য দিনের সাধারণ বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে।  ২৭ বছর বয়সী রাজশাহী বিভাগের এ ওপেনার জাতীয় লিগে সর্বশেষ পাঁচ ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেছেন। সিলেটের বিপক্ষে তিনি ইনিংস শেষ করেছিলেন ১৪৩ রানে। এছাড়া চট্টগ্রামের বিপক্ষে ১০২, ঢাকা মহানগরের বিপক্ষে ১৭৫, খুলনার বিপক্ষে ১১৫ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। সর্বশেষ সেঞ্চুরির দেখা পেলেন আজ রংপুরের বিপক্ষে।  যেখানে তার ১৬৫ রানের সংগ্রহে রাজশাহীর রানের পাহাড় গিয়ে দাড়ায় ২ উইকেটে ৪১৯ রানে। রাজশাহী সর্বশেষ চার ম্যাচেই এক ইনিংস করে ব্যাটিং করেছে।

বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। (ফাইল ছবি)

এছাড়া গত মৌসুমেও অসাধারণ চমক উপহার দিয়েছেন মিজানুর।  এছাড়া মাত্র ৩৬ রানের জন্য গত জাতীয় লিগে তামিম ইকবালের টানা তিন ইনিংসেই সেঞ্চুরির রেকর্ডটা ছুঁয়েও ভাঙতে পারেননি তিনি।  যার আক্ষেপ এখনও আছে তার মাঝে। মিজানুর বলেন, “এক বড় ভাই বলছিল নিজের ওপর বিশ্বাস রাখ, তুই পারবি। সেই বিশ্বাসটা রেখেছি। গত দুই বছর অনেক কষ্ট করেছি। এখন সেই পরিশ্রমের ফল পাচ্ছি। ”

শুধু যে নিজেই ভালো খেলে চলেছেন তা নয়। নাজমুলের সাথে একাধিকবার অসাধারণ জুটিও বেধেছেন তিনি।

খুলনার বিপক্ষে ১১৫ রানের পর আজ রাজশাহীতে রংপুরের বিপক্ষে করেছেন ১৬৫। সেইসাথে নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে মিজানুরের ওপেনিং জুটিতে আসে ৩১১ রান।

পরবর্তী দলে মিজানুরের জায়গা হবে কিনা তা নিশ্চিতভাবে বলা না গেলেও কিছুটা ইঙ্গিত দিচ্ছেন মিনহাজুল। মিজানুর ও নাজমুলের পারফরম্যান্সের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “খুব ভালো ব্যাটিং করেছে দুজনই। আমি এসেছিলাম মিজানুরকে দেখতে। গত দুই বছর সে ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক ভালো খেলছে। একটু দেখতে চেয়েছিলাম, কোনো বোলিংয়ের বিপক্ষে কেমন খেলে, বিশেষ করে পেস বোলিংয়ে। ব্যাটসম্যান খারাপ নয়। তবে জাতীয় দলের সুযোগ-সুবিধা পেলে বা আরও একটু ভালো পরিচর্যা পেলে সে আরও ভালো করতে পারবে। ”

Related Articles

মিজানুরের সেঞ্চুরি, অপেক্ষায় শান্ত

শান্ত-মিজানের ব্যাটে স্বস্তির ‘ড্র’ উত্তরাঞ্চলের

শেষ বলের শ্বাসরুদ্ধকর জয়ে প্রিমিয়ারে টিকে রইলো ব্রাদার্স

মিজানুরে ম্লান আশরাফুলের ‘রেকর্ড’ শতক

অল্পের জন্য তামিমকে ছাড়িয়ে যেতে পারলেন না মিজানুর