টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের ‘ট্রাম্পকার্ড’ হওয়ার সুযোগ আফিফের

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আফিফ হোসেন ধ্রুবর পথচলা শুরু হয়েছে প্রায় ৩ বছর আগে, সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন টি-টোয়েন্টিতেই। দলে থিতু হতে কিছুটা সময় তো লেগেছেই। অতীতের পারফরম্যান্স আহামরি ভালো না হলেও আফিফ নতুন করে আলোচনায় এসেছেন সদ্য সমাপ্ত অস্ট্রেলিয়া সিরিজ দিয়ে।

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের 'ট্রাম্পকার্ড' হওয়ার সুযোগ আফিফের

Advertisment

সিরিজজুড়ে আফিফের চোখ জুড়ানো ব্যাটিং প্রশংসা কুড়িয়েছে কম-বেশি সবার। ৫ ম্যাচের সবগুলোতেই খেলেছেন আফিফ, রান করেছেন ১০৯- যা বাংলাদেশিদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এবং পুরো সিরিজে তৃতীয় সর্বোচ্চ। মিরপুরের ধীরগতির আর ‘ব্যাটসম্যানদের জন্য কঠিন’ উইকেটেও ১২২ ছাড়ানো স্ট্রাইক রেট অবশ্যই দারুণ। দ্বিতীয় ম্যাচে আফিফের অপরাজিত ৩৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংসে ভর করেই ম্যাচ জিতেছিল টাইগাররা।

সিরিজজুড়ে আফিফ ছক্কা হাঁকিয়েছেন ৪টি, পুরো সিরিজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। সর্বোচ্চ ৫টি ছক্কা আছে অস্ট্রেলিয়ার ড্যান ক্রিস্টিয়ানের, যা তিনি চতুর্থ ম্যাচে সাকিব আল হাসানের এক ওভারেই মেরেছেন। অর্থাৎ, সিরিজে বাংলাদেশিদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছক্কা মেরেছেন আফিফই। উইকেটের চারপাশে শট খেলেছেন, প্রয়োজন বুঝে পাওয়ার হিটিংও করেছেন। মিচেল স্টার্কের বিরুদ্ধেও তার দৃষ্টিনন্দন শট ছিল মনোমুগ্ধকর।

মিডল অর্ডারে তরুণ আফিফের বুদ্ধিদীপ্ত ব্যাটিং তাই ছিল বেশ কার্যকরী। সিরিজ জুড়ে পরিস্থিতির দাবি মিটিয়ে দৃষ্টিনন্দন ব্যাটিং দিয়ে ভক্ত, সমর্থক, বিশ্লেষক সকলের বাহবা পেয়েছেন। অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকে বাংলাদেশের প্রাপ্তির জায়গাগুলোর মধ্যে নিঃসন্দেহে উপরের দিকেই থাকবে তার ব্যাটিং।

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের 'ট্রাম্পকার্ড' হওয়ার সুযোগ আফিফের

টি-টোয়েন্টিতে মিডল বা লোয়ার মিডল অর্ডারে খুব কার্যকরী কোনো ব্যাটসম্যান বাংলাদেশ দলে সেভাবে দেখা যায়নি কখনই। আফিফের এই পারফরম্যান্স অবশ্যই বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট, ভক্ত, সমর্থক সবাইকে স্বস্তি দিবে। হার্ড হিটিংয়ে পটু এরকম কাউকেই তো দরকার টি-টোয়েন্টির জন্য! বাংলাদেশের ক্রিকেটে তরুণ ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স নিয়ে যে হতাশার কথা প্রতিনিয়ত শোনা যায়, আফিফ তা কিছুটা হলেও ঘোচানোর সামর্থ্য রাখেন। অন্তত সেই আস্থা তিনি এতদিনে অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।

বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকে শুরু করে ঘরোয়া ক্রিকেট- সব জায়গায় ভালো করে জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া আফিফ নিজের প্রতিভার ছাপ রাখতে শুরু করেছেন আন্তর্জাতিক মঞ্চেও। বিশেষত টি-টোয়েন্টি দলে তার সুযোগ দলের ‘ট্রাম্পকার্ড’ হওয়ার। আফিফের পারফরম্যান্সের ছন্দ অব্যাহত থাকলে ‘ট্রাম্পকার্ড’ হয়ে উঠতে বেশি সময় নেওয়ার কথা নয়!

  • রাইসান কবির

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।