টি-টোয়েন্টিতে ভালো করতে নাফীসের পরামর্শ

0
592

বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ছিলেন শাহরিয়ার নাফীস। প্রথম ম্যাচেই জয় তুলে নিয়ে ভালো শুরুর জানান দেয় বাংলাদেশ। কিন্তু প্রায় ১৫ বছর ধরে টি-টোয়েন্টি খেলে আসলেও রেকর্ড টাইগারদের পক্ষে কথা বলে না। প্রথম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ব্যাপারটাকে কীভাবে মূল্যায়ন করেন তা জানিয়েছেন সেই সাথে বলেছেন টেস্টে ভালো করলেই টি-টোয়েন্টিতে ভালো করা সম্ভব।

Advertisment

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ মোট ৯৬টি ম্যাচ খেলেছে। যার মধ্যে দলটির জয় মাত্র ৩২টি ম্যাচে। জয়ের হার ৩৪.০৪ শতাংশ। ৬২টি টা ম্যাচে হার মানতে হয়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। টি-টোয়েন্টিতে ভালো পারফর্ম করা দলগুলোর উদাহরণ দিয়ে নাফীস বলেন, তারা অনেক বছর ধরে ক্রিকেট খেলায় তাদের বেসিক ভালো। এই জায়গাতে অন্য দলগুলোর থেকে পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ।





পাওয়ারপ্লে কমিউনিকেশন্সের সরাসরি আড্ডায় নাফীস বলেন, ‘এটা একটা দুর্ভাগ্যজনক ব্যাপার। কিন্তু একটা জিনিস সবার মাথায় রাখতে হবে, টি-টোয়েন্টি খেলাটা নতুন আর টি-টোয়েন্টিতে যে দলগুলো এখন দুর্দান্ত খেলছে, ধারাবাহিক জয় পাচ্ছে তাদের ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতা প্রায় একশ বছরের। তাদের ক্রিকেটের বেসিকটা ভালো বলেই এখন তারা সবদিকেই সহজে মানিয়ে নিতে পারছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘অপরদিকে আমরা মাত্র ২০-২৫ বছর ধরে শুরু করেছি। এই কারণে আমাদের এই মানিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে একটু পিছিয়ে আছি। তবে আমার মনে হয়, আমরা মানিয়ে নিতে পারবো তাড়াতাড়িই।’






টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভালো করার জন্য এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের পরামর্শ আগে টেস্ট ক্রিকেটে উন্নতি করার। বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক বলেন,

‘ওয়ানডে ক্রিকেটে কিন্তু আমরা ভালো করছি কারণ আমাদের ওয়ানডে খেলার ইতিহাসটা বেশ পাকাপোক্ত। এটার জন্য আমরা যদি আমাদের বেসিকের দিকে মনোযোগী হয়, যদি আমাদের টেস্ট ক্রিকেটে আরও উন্নতি করতে পারি তাহলে স্বাভাবিকভাবেই টি-টোয়েন্টিও আমাদের ভালো হবে।’

অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে, টেস্ট ক্রিকেটে উন্নতি করার সাথে টি-টোয়েন্টিতে ভালো ফলাফল আসার সম্পর্ক কী- সেই প্রশ্নের জবাবও দিয়েছেন এই ক্রিকেটার।

নাফীসের ভাষায়, ‘অনেকে বলতে পারে যে এটার আবার কী মিল আছে। আসলে আমি যদি ক খ গ ঘ না জানি তাহলে বাক্য, রচনা, কবিতা কিছুই লিখতে পারব না। তাই আমার ওই ব্যকরণ, বর্ণ পরিচয় যদি ভালো করে শিখি তাহলে বাংলাদেশ এখন যে অবস্থায় আছে তারচেয়ে ৫ গুণ উন্নতি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে করবে ইনশাআল্লাহ।’

২০০৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের অধিনায়ক ছিলেন নাফীস। খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে মাশরাফি বিন মর্তুজার দুর্দান্ত পারফর্মে সেদিন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয় দিয়ে ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে যাত্রা শুরু করেছিল বাংলাদেশ।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।