Scores

টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগে বাংলাদেশকে নিয়ে স্টার স্পোর্টসের ঠাট্টা

আগামী ৩ নভেম্বর থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ ভারত টি টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের ১ম টি টোয়েন্টি অনুষ্ঠিত হবে দিল্লীর অরুন জেটলি স্টেডিয়ামে।

টিটোয়েন্টি সিরিজের আগে বাংলাদেশকে নিয়ে ঠাট্টা স্টার স্পোর্টসের
ছবি : আইএএনএস, স্টার স্পোর্টস

বাংলাদেশ-ভারত খেলা মানেই বর্তমান সময়ে বাড়তি উত্তেজনা। গত কয়েক বছর ধরেই বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচগুলো বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা মূলক হচ্ছে। ২০১৬ সালের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ১ রানে হার, ২০১৮ সালের নিদাহাস ট্রফিতে শেষ বলে হার, এশিয়া কাপ ফাইনালে শেষ বলে হার, ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে সাইফের শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাওয়া সবগুলো ম্যাচই দর্শকদের লম্বা সময় মনে থাকবে। বাংলাদেশ ভারত ম্যাচ ঘিরে তৈরি হওয়া এই উত্তেজনা দর্শকদের মাঝে আরো ছড়িয়ে দিতে স্টার স্পোর্টস সম্প্রতি একটি বিজ্ঞাপন তৈরী করে সিরিজের প্রচারনার জন্য।

Also Read - অস্ট্রেলিয়া সিরিজের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড ঘোষণা শ্রীলঙ্কার


সেই বিজ্ঞাপনটিতে অভিনয় করেন ভারতের তারকা ক্রিকেটার বিরেন্দর শেবাগ। তবে সেই বিজ্ঞাপনটিকে ঘিরেই উঠেছে আলোচনা,সমালোচনার ঝড় নেটিজেনদের মাঝে।

স্টার স্পোর্টসের বিজ্ঞাপনটিতে বাংলাদেশকে দেখানো হয় একটি বল হিসেবে ও ভারতকে ব্যাট। সেখানে নিছক মজার খেলায় কোহলিকে উড়িয়ে দিতে পারায় বাংলাদেশ সমর্থককে খুব খুশি দেখানো হয়। তা দেখে শেবাগ বলেন ” এই মজার খেলায় ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশ যদি এত উড়তে পারে তাহলে এরা ভারতকে প্রথমবারের মতো টি টোয়েন্টিতে হারাতে পারলে কি করে বসবে?

এই বিজ্ঞাপন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। বাংলাদেশি ভক্তদের মতে এই ধরনের বিজ্ঞাপন খুবই নিম্ন মানের ও এতে প্রতিপক্ষকে নিচু করা হয়েছে। ভারতীয় ভক্তরা অধিকাংশই এই বিজ্ঞাপনকে সাধুবাদ জানালেও কারো কারো দাবি এইরকম বিষয় নিয়ে বিজ্ঞাপন না বানানোর যা প্রতিপক্ষকে হেয় করে।

স্টার স্পোর্টস এর আগেও শুধু বাংলাদেশ নয় প্রায় অনেক প্রতিপক্ষকে হেয় করেই বিজ্ঞাপন প্রচার করেছে সিরিজের আগে। আসন্ন সিরিজ নিয়ে শেবাগ জানান “বাংলাদেশ একটি ভালো দল, ভারত ও বাংলাদেশের মাঝে যে লড়াই রয়েছে তা ২০০৭ বিশ্বকাপ ও ২০১৫ সালে বাংলাদেশের ঘরের মাটিতে সিরিজের পর আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এটা সত্য তারা আমাদের টি টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত কখনো হারাতে পারেনি। মাঠের বাইরে এই ধরনের হাসি ঠাট্টা ( বিজ্ঞাপনকে ইঙ্গিত করে) চলতেই থাকে। আমরা সকলেই জানি বাংলাদেশি ভক্তরা বিশাল ক্রিকেট ভক্ত ও তারা ক্রিকেটকে সিরিয়াসলি নিয়ে থাকে। আপনারা তা লক্ষ্য করতে পারবেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দুই পক্ষের নানান ধরনের ট্রলের মাধ্যমে গত কয়েক বছরে। আমি আসন্ন সিরিজকে নিয়ে খুব আগ্রহী “।

উল্লেখ্য এর আগে বাংলাদেশ একাধিক বার কাছাকাছি আসলেও ভারতকে টি টোয়েন্টিতে হারাতে পারেনি।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

Related Articles

আইপিএল শুরু হতেই নতুন বিতর্কে মাঞ্জরেকার

চায়না মোবাইলের বিজ্ঞাপনে ধোনি, সমালোচনায় উত্তাল টুইটার

পতাকায় অ্যান্ডারসনের পা, টুইটারে নিন্দার ঝড়

অ্যান্ডারসনকে খাটো করে সমর্থকদের তোপের মুখে শোয়েব

অ্যান্ডারসনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ভন, ওয়ার্ন, মুশফিকরা