টুইট করে নিজের বেদনার কথা জানালেন স্কটিশ তারকা

আইসিসি বিশ্বকাপ শুরু হতে বেশি দিন বাকি নেই। আসন্ন আইসিসি বিশ্বকাপে অংশ নিবে দশটি দল। দল সংখ্যা এই শতাব্দীর বিশ্বকাপের মাঝে এইবারই সবচাইতে কম। ২০০৭ বিশ্বকাপে ১৬টি দল, ২০১১ ও ২০১৫ বিশ্বকাপে ১৪টি দল অংশ নেয়। আইসিসি যখন দশ দলের বিশ্বকাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় তখন মূল কারন হিসেবে জানানো হয় বিশ্বকাপকে আরো প্রতিযোগিতামূলক আসর হিসেবে প্রদর্শনের জন্য আইসিসির এই পদক্ষেপ। আইসিসির এই সিদ্ধান্তে গত কয়েক আসর ধরে নিয়মিত বিশ্বকাপ খেলা দল জিম্বাবুয়ে, আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডের মত দল এইবারের বিশ্বকাপ খেলতে পারছেনা। বাছাইপর্বে খুব কাছে এসেও বৃষ্টি ও আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের কারনে বিশ্বকাপের টিকিট পাওয়ার দৌড় থেকে ছিটকে পরে স্কটল্যান্ডের মতো সাম্প্রতিক সময়ে ভালো পারফরম্যান্স করা দল।

টুইট করে নিজের বেদনার কথা জানালেন স্কটিশ তারকা
ছবি : এএফপি, মার্টিন মেলেভি

 

Advertisment

নিজের ঘরের দুয়ারের কাছে ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ হচ্ছে ও স্কটল্যান্ড তাতে অংশ নিতে পারছেনা এতে বেশ মর্মাহতই স্কটল্যান্ডের খেলোয়াড়েরা। গত বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫৬ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলা কাইল কোয়েটজার টুইট করে তার বেদনার কথা জানান।

কোয়েটজার তার টুইটে লিখেন ” বিশ বছর আগে আমি স্কটল্যান্ডকে বিশ্বকাপে খেলতে দেখেছি, সেটা আমার জন্য সবচাইতে বড় অনুপ্রেরনা ছিলো ক্রিকেট খেলার। আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে মানুষের আমেজ দেখে ভালো লাগছে। তবে হতাশার ব্যাপার স্কটল্যান্ড দল ও অন্য আরো বেশ কিছু প্রতিভাবান দল ক্রিকেট ভক্তদের দেখানোর সুযোগ পাবেনা দল হিসেবে বিশ্ব ক্রিকেটে তারা কত এগিয়ে গিয়েছে। ”

তার টুইটে অনেক স্কটিশ ক্রিকেট ভক্ত সমর্থকরাও হতাশা প্রকাশ করেন। তাদের মতে স্কটল্যান্ডের বর্তমান প্রজন্মের শিশুরা নিজের ঘরের কাছে বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে নিজের দেশকে দেখার সুযোগ হারাচ্ছে আইসিসির হটকারি সিদ্ধান্তের ফলে। তাদের প্রশ্ন বিশ্বকাপে নিজের দেশকে না দেখলে তারা ক্রিকেট খেলার অনুপ্রেরনা কীভাবে পাবে যেমনটা কাইল কোয়েটজার পেয়েছিল ২০ বছর আগে নিজের ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপ দেখে।

https://twitter.com/paterson_kenny/status/1131910608662736896?s=19

১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড ছাড়াও এর পার্শ্ববর্তী ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলোতেও কিছু ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। স্কটল্যান্ডে ২টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম ম্যাচটি ছিলো এডিনবার্গে বাংলাদেশ ও স্কটল্যান্ডের মাঝে। ম্যাচটিতে বাংলাদেশ শুরুতে বিপর্যয়ে পরলেও মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর দারুন ইনিংসে বাংলাদেশ জয় লাভ করে।