Scores

টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ সংগ্রহ নাজমুল একাদশের

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের চতুর্থ ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ একাদশের বিপক্ষে শক্ত পুঁজি দাঁড় করেছে নাজমুল একাদশ। আফিফ হোসেন ধ্রুব ও মুশফিকুর রহিমের দৃঢ়তার পর ইরফান শুক্কুরের ঝড়ো অর্ধশতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৬৪ রান জড়ো করে দলটি। টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস এটি। 

আফিফ-মুশফিকের ব্যাটে নাজমুল একাদশের টুর্নামেন্ট-সেরা সংগ্রহ

‘হোম অব ক্রিকেট’ খ্যাত মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বোলিংয়ে নেমে শুরুতে সাফল্যও পান। ৮ রান করা সৌম্য সরকার দলীয় ১৩ রানেই ফেরেন প্যাভিলিয়নে। সৌম্যর পর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তও রুবেলের বলে বোল্ড হন, ১৪ বলে মাত্র ৩ রান করে।

Also Read - '২' রানের জন্য আফিফের স্বপ্নভঙ্গ


এরপর মুশফিকুর রহিম ক্রিজে এসে ধীর ব্যাটিং শুরু করেন। একপ্রান্তে তিনি উইকেট আগলে রাখার চেষ্টা করলেও আরেক প্রান্তে আশা জাগাচ্ছিলেন পারভেন হোসেন ইমন। তবে তরুণ এই ওপেনার ১৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন, ২১ বলের মোকাবেলায়। ইমনকে সাজঘরে ফেরান পেসার সুমন খান।

মাহমুদউল্লাহ একাদশ রুবেল একাদশ

ইমনের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন আফিফ। মুশফিকের সাথে দলের হাল ধরেন শক্ত হাতে। চতুর্থ উইকেটে দুইজনে গড়েন ১৪৭ রানের পার্টনারশিপ। আফিফ পৌঁছেছিলেন শতকের কাছাকাছি। তবে মুশফিকুর রহিমের সাথে ভুল বুঝাবুঝিতে রান আউট হন ব্যক্তিগত ৯৮ ও দলীয় ১৭৮ রানের মাথায়। তার আগে হাঁকিয়েছেন ১২টি চার ও ১টি ছক্কা।

আফিফের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকে থাকতে পারেননি মুশফিকও। অর্ধ-শতক পূর্ণ করলেও ৯১ বলে ৫২ রান করে ধরেন সাজঘরের পথ, এবাদত হোসেনের শিকার হয়ে। মুশফিক পুরো ইনিংসজুড়ে হাঁকিয়েছেন মাত্র ১টি চার। শেষদিকে বোলারদের উপর চড়াও হন ইরফান শুক্কুর। ফর্মে থাকা এই ব্যাটসম্যান ৩০ বলে ৪৮ রান করে অপরাজিত থাকেন, যে ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ২টি ছক্কা। ২৯ বলে ২৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন তৌহিদ হৃদয়। রিশাদ হোসেন ও তাসকিন আহমেদ যথাক্রমে ১ ও ০ রানে সাজঘরে ফেরেন।

রুবেল হোসেন একাই শিকার করেন তিনটি উইকেট। দুটি উইকেট পান এবাদত হোসেন।

স্কোরকার্ড 

টস : মাহমুদউল্লাহ একাদশ

নাজমুল একাদশ : ২৬৪/৮ (৫০ ওভার)

ইমন ১৯ (২১), সৌম্য ৮ (৪), শান্ত ৩ (১৪), মুশফিক ৫২ (৯২), আফিফ ৯৮, হৃদয় ২৭ (২৯), শুক্কুর ৪৮* (৩০), রিশাদ ১, তাসকিন ০, নাসুম ০*

এবাদত ১০-০-৬০-২, রুবেল ১০-২-৫৩-৩, সুমন ৯-০-৫২-১, রকিবুল ১০-০-৩২-০, মিরাজ ৯-০-৪৮-১, রিয়াদ ২-০-১৮-০

জয়ের জন্য মাহমুদউল্লাহ একাদশের প্রয়োজন ২৬৫ রান।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

তামিম ও আকবর ঝড়ে ‘বি’ দলের রান পাহাড়

নাঈম-আফিফের জোড়া ফিফটিতে আকবরদের সামনে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য

মিরপুরে নাঈম-ঝলকের পর অর্ধশতকের পথে আফিফ

ভুল শুধরে টি-টোয়েন্টির জন্য নিজেকে প্রস্তুত করছেন আফিফ

তরুণদের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ মাহমুদউল্লাহ