টেন্ডুলকারকে সমর্থন দেওয়ায় ভারতের অধিনায়ক হতে পারেননি যুবরাজ!

0
251

২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নাকি যুবরাজ সিংয়ের-ই ভারত দলের অধিনায়ক হওয়ার কথা ছিল! এমনটাই দাবি করেন তিনি। কিন্তু সে সময় সিনিয়র ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকারকে সমর্থন দেওয়া পছন্দ হয়নি হেড কোচ গ্রেগ চ্যাপেলের।

পুরনো মামলায় গ্রেফতার যুবরাজ, জামিনে পেলেন মুক্তি
যুবরাজ সিং। ফাইল ছবি

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে পা রাখে তখন এতোটা জনপ্রিয় ছিল না। যে কারণে এই ফরম্যাটে না খেলার পক্ষেই ছিলেন ভারতের সিনিয়র ক্রিকেটার শচীন, দ্রাবিড়, গাঙ্গুলিরা। তাঁরা চেয়েছিলেন ২০০৭ বিশ্বকাপে যেন তরুণদের নিয়েই খেলা হয়।

Advertisment

২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ভারত। আর সেই দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ধোনি। সেই বিশ্বকাপ জয়ের পেছনে বড় অবদান ছিল যুবরাজের। অথচ ধোনির পরিবর্তে বিশ্বকাপে যুবরাজের নেতৃত্ব দেওয়ার কথা ছিল! এমনটাই দাবি করে বসলেন এ সাবেক অলরাউন্ডার।

“আমারই অধিনায়ক হওয়ার কথা ছিল। তখনই গ্রেগ চ্যাপেল (ভারতের হেড কোচ) ওই ঘটনা ঘটান। গ্রেগ বা শচীনের মধ্যে এক জনকে বেছে নিতেই হতো। আমিই সম্ভবত দলের এক মাত্র সদস্য ছিলাম যে সতীর্থের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলাম। যেটা দলের অনেকে এবং বোর্ডের কিছু কর্তাও পছন্দ করেননি। তখনই তাঁরা ঠিক করেন আমার বদলে অন্য কাউকে অধিনায়ক করলে ভালো হবে।”

তিনি আরও যোগ করেন, “এটা সত্যি কি না সে ব্যাপারে আমি নিশ্চিত নই। যদিও আমাকে হঠাৎ করেই সহ-অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। শেওয়াগও দলে ছিল না। তাই মাহিকেই অধিনায়ক বেছে নেওয়া হয়েছিল ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য। আমি অধিনায়ক হব এ রকম আশা কিন্তু আমার ছিল।”

২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন যুবরাজ।

ধোনির অধীনে ভারত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতলে পরবর্তীতে তাঁকে সব ফরম্যাটেই অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করা হয়। তাঁর অধীনে ভারত সাফল্যও পেয়েছে। ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও জিতেছে ভারত। যুবরাজ ধোনির কাছে নেতৃত্ব হারালেও আক্ষেপ নেই তাঁর।

“সীমিত ওভারে দলের সহ-অধিনায়ক ছিলাম। তাই আমার নেতৃত্ব পাওয়াই স্বাভাবিক ছিল। দুর্ভাগ্যজনক ভাবে সেই সুযোগটা পাইনি। অধিনায়ক হিসেবে ধোনি বেশ ভালো কাজ করছিল। আমি অধিনায়ক হলেও আমাকে চোটের জন্য দলের বাইরে যেতেই হতো। তাই আমার কোনও আক্ষেপ নেই ভারতের অধিনায়ক না হতে পারার জন্য। অবশ্যই এটা বিরাট সম্মানের।”

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।