Scores

টেস্টের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত হচ্ছেন তাসকিন

টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করার জন্য যে বাড়তি সুযোগ- সুবিধার প্রয়োজন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ( বিসিবি) ক্রিকেটারদেরকে সেসব সরবরাহ করছে। তবে দিনশেষে ক্রিকেটারদের নিজেদের প্রচেষ্টাকেই সাফল্য সবচেয়ে বড় নিয়ামক বলে মনে করছেন তাসকিন আহমেদ। তিনি নিজেকে প্রস্তুতও করছেন সেভাবে।

টেস্টের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত হচ্ছেন তাসকিন

২০১৪ সালে জুনে একদিনের ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পা রেখেছিলেন ১৯ বছরের তাসকিন আহমেদ। টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক তার প্রায় আড়াই বছর পরে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে। তার সাদা পোশাকে অভিষেক নিয়েও ছিল বেশ বিতর্ক। আরেকটু রয়েসয়ে তাসকিনের টেস্ট ক্রিকেটে আসার পক্ষে ছিলেন অনেকেই। অবশ্য প্রায় তিন বছর হলো টেস্ট অভিষেক হলেও তিনি খেলেছেন মাত্র ৫টি ম্যাচ।

Also Read - তিন চ্যানেলে দেখা যাবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান


বাংলাদেশের ঘরের মাঠের টেস্টগুলোতে স্পিন-নির্ভর দল সাজানো হয়ে। আবার চোট এবং দলের কম্বিনেশন মিলিয়ে খুব বেশি সুযোগ পাননি এই ডানহাতি পেসার। অবশ্য দলে নিজের অবস্থান পাকাপোক্ত করার মতো খুব আহামরি পারফর্মও করতে পারেননি, ৫ টেস্টে শিকার করেছেন মাত্র ৭টি উইকেট।

কোনো সংস্করণেই বর্তমানে জাতীয় দলে নেই তাসকিন। আবার দলে ফেরার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সাদা পোশাকে আবার ফেরার জন্য করছেন পরিশ্রম। টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করার জন্য বিসিবির নেয়া উদ্যোগেও সন্তষ্টি প্রকাশ করেছেন এই পেসার।

তাসকিন বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেট একটা কঠিন জায়গা, দক্ষতা, মানসিক প্রস্তুতি একটু বেশি লাগে। এটার জন্য বিসিবি আমাদের সেরা সুযোগটা দিচ্ছে, ভালো ভালো কোচের অধীনে ট্রেনিং করাচ্ছে।’

তবে ভালো কোচের অধীনে ট্রেনিং করলেই হবে না, নিজেদের চেষ্টাকেই বড় করে দেখছেন তিনি, ‘নিজেদেরও ইচ্ছা শক্তিটা আরও বেশি লাগবে বলে মনে করছি । নিজের তাগিদে উন্নতি, নিজের ইচ্ছায় ট্রেনিং করা বা আলাদা ব্যক্তিগত ট্রেনার নিয়ে ট্রেনিং করা। এ জিনিসগুলো আগে থেকে অনেক ভালো বলা যায় আমাদের মধ্যে। আমাদের মধ্যে এই উন্নতি করাটা শুরু হয়েছে। এসব নিজের দায়িত্ব, দিনশেষে পারফর্ম করতে না পারলে সে নিজেই বাদ পড়বে। দলেরও ক্ষতি। নিজে থেকে একটু বেশি চেষ্টা করলে ভালো হয়।’

বাংলাদেশে বর্তমান প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিকেটারের সংখ্যা বেড়েছে। এটাকে ইতিবাচক ধরেই নিজের সেরাটা দিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে নিজেকে তৈরি করছেন তাসকিন।

এই ডানহাতি পেসার বলেন, ‘এখন কিন্তু যারা টেস্ট খেলে আমাদের তারা প্রথম শ্রেণিতে বেশ মনযোগী। ভালোমত খেলছে বিশেষ করে বোলাররা। আমিও আল্লাহর রহমতে অনেক বেশি বল করেছি এবার। নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করছি যেন ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক ম্যাচে সুযোগ হলে সেভাবে কঠিন চ্যালেঞ্জটা নিতে পারি।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

উডের বদলি সাকিব

ওয়েলিংটনে হারের শঙ্কায় ভারত

অনাহূত অতিথির খপ্পরে ওয়েলিংটন টেস্ট

দলে নিয়মিত হয়েও রাহীর কণ্ঠে আক্ষেপ

বাংলাদেশের পর অস্ট্রেলিয়াকেই বেছে নিলেন কোহলিরা