Scores

টেস্টে টস বাদের পরিকল্পনা নিয়ে মাশরাফির ভাবনা

ক্রিকেটের অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ ‘টস’। সব ফরম্যাটেই টসের মাধ্যমে ম্যাচের সূচনা হয়। টস জেতা দলের অধিনায়ক নির্ধারণ করেন কে আগে ব্যাটিং বা ফিল্ডিং করবে। তবে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় ফরম্যাট টেস্ট থেকে উঠে যেতে পারে টসের ব্যবস্থা। ভবিষ্যতে টস না থাকার এমনই এক সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

টেস্টে টস বাদের পরিকল্পনা নিয়ে মাশরাফির ভাবনা

পাঁচ দিনের খেলা টেস্টে স্বাগতিক দল নিজেদের সুবিধামত পিচ বানিয়ে ফায়দা লুটে থাকে। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকায় যেমন পেস সহায়ক উইকেট বানানো হয় তেমনি উপমহাদেশের প্রেক্ষাপটে চিত্রটি হয় ঠিক উল্টো। বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কায় সাধারণত সুবিধা পান স্পিনাররা। অন্যদিকে স্বাগতিক দল টসে জিতলে ম্যাচের ভাগ্য অনেক ক্ষেত্রেই টসের মাধ্যমেই নির্ধারণ হয়ে যায়। টেস্টে আরও ভারসাম্য আনতে তাই পুরো টস প্রথাই তুলে নেবার কথা ভাবছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

Also Read - এখনো শীর্ষে সাকিবরা


বর্তমান র‍্যাংকিং অনুসারে অষ্টম টেস্ট খেলুড়ে দেশ বাংলাদেশ। ফলে টস উঠে যাওয়া প্রসঙ্গে ভাবতে হচ্ছে টাইগারদেরও। টেস্টে না খেললেও ক্রিকেটের খোঁজখবর ভালোই রাখেন ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। আর তার দৃষ্টিতে, টসের প্রথা উঠে গেলে টেস্টে ক্ষতিগ্রস্ত হতে হবে না কাউকে।

মাশরাফি বলেন-

‘এই আইনটি হলে সবার জন্যই তা সমান হবে। আমরা যখন আবার সফরে যাব, তখন তো এই সুবিধাটা আমরাও পাব। ওইভাবেই চিন্তা করতে হবে। নেতিবাচক চিন্তা করে লাভ নেই। ইতিবাচকভাবেই দেখতে হবে।’

স্বাগতিক দলের ভূমিকায় থেকে সুবিধা আদায় করা না গেলেও সফরকারী দল হিসেবে যে অন্তত ঝামেলা পোহাতে হবে না, সেটিই যেন মনে করিয়ে দিলেন মাশরাফি। সেই সাথে তাগিদ দিলেন সুবিধা আদায়ের মানসিক প্রস্তুতিরও। তিনি বলেন, ‘সফরে গেলে আপনিও আগে ব্যাটিং বা বোলিং নেওয়ার এই সুবিধাটা নিতে পারবেন। সুবিধাটা নিতে পারলে লাভ। কিন্তু সুবিধাটা নেওয়ার যোগ্যতাও আমাদের থাকতে হবে। সে জন্য সেই মানের দক্ষ হয়ে উঠতে হবে আমাদের।

আরও পড়ুনঃ অনির্দিষ্টকালের জন্য বিরতি নিলেন ব্যালেন্স

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

পুরানকে নিষিদ্ধ করল আইসিসি!

ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিং থেকেও সাকিবের নাম মুছে ফেললো আইসিসি

পাপনের সাথে নাগপুরে থাকবেন মনোহরও

চার ইনিংসের ওয়ানডে চান শচীন

দুদক অফিসে সাকিব আল হাসান