টেস্ট ক্রিকেট পরিবারের নতুন সদস্য আফগানিস্তান-আয়ারল্যান্ড

Ireland-Afghanistan
টেস্ট খেলার মর্যাদা পেয়েছে আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তান। বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের পূর্ণ সদস্যের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। লন্ডনে আইসিসির বার্ষিক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তান টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ায় টেস্ট খেলুড়ে দেশের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২। ১৭ বছর পর টেস্ট ক্রিকেটের পরিবারে সদস্যের সংখ্যা বাড়লো। সর্বশেষ ২০০০ সালে টেস্ট স্ট্যাটাস পেয়েছিল বাংলাদেশ।

Advertisment

আইসিসির কাছে আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড সহযোগী সদস্য থেকে পূর্ণ সদস্যে উন্নীত হওয়ার জন্য আবেদন করে। বৃহস্পতিবার সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে ভোটের আয়োজন করা হয়। সব সদস্যরাই তাদের পক্ষে ভোট দেয়। সর্বসম্মতিক্রমে আইসিসি তাদের পূর্ণ সদস্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।

আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন এক বিবৃতিতে বলেন, “পূর্ণ সদস্যের মর্যাদা পাওয়ায় আমি আফগানিস্তান  ও আয়ারল্যান্ডকে অভিনন্দন জানাতে চাই। এটি তাদের মাঠের বাইরে ও মাঠের পারফরম্যান্স উন্নতি করার জন্য যে প্রচেষ্টা তার ফল। তাদের প্রচেষ্টার ফলে সেখানে অনেক গুরুত্বপূর্ণ উন্নতি হয়েছে ও ক্রিকেটের বিকাশ ঘটেছে।”

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী শফিক স্টানিকজাই মনে করছেন এটি আফগানদের জন্য এক বিশাল পাওনা। তিনি বলেন, “আফগানিস্তানের জন্য এটি একটি বিশাল এবং স্মরণীয় প্রাপ্তি। পুরো জাতি এটি উদযাপন করবে। ইদের উপহার হিসেবে এটা একদম উপযুক্ত।”

আয়ারল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ওয়ারেন ডিউট্রোম বলেন, “আজকের ঐতিহাসিক ঘোষণার পর আমরা আনন্দিত ও গর্বিত।”

২০১১ সালে ওয়ানডে স্ট্যাটাস পেয়েছিল আফগানরা। ২০১৫ বিশ্বকাপ অংশগ্রহণ করেছিল তারা। অন্যদিকে ২০০৭ সাল থেকে নিয়মিত বিশ্বকাপ খেলছে আইরিশরা। নিজেদের প্রথম বিশ্বকাপেই পাকিস্তান ও বাংলাদেশকে হারিয়েছিল তারা। এরপর ২০১১ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চমক দেখায় আয়ারল্যান্ড। 

-আজমল তানজীম সাকির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম ডট কম