Scores

‘ডিফারেন্টলি অ্যাবল’ শিশু-কিশোরদের সঙ্গে মাশরাফি-মোস্তাফিজের অন্যরকম বিকেল

মোস্তাফিজের কাটারের রহস্য এখনো উদঘাটন করতে পারেনি কেউ। তার বল খেলতে দুইবার ভাবতে হয়েছে বিশ্বের বাঘা বাঘা সব ব্যাটসম্যানকে। মোস্তাফিজকে না পেড়ে যেন সব ঝাল মেটালেন মাশরাফির উপর। বাংলাদেশে ওয়ানডে দলপতির বলে মাঠের বাইরে উড়িয়ে মেরে সেটিরই জানান দিলেন একজন।

mash-musta-02

কিছু মানুষের কাছে ছাঁদটাই হল তাদের মাঠ। আর সামান্য জায়গাটুকুই হল তাদের স্বপ্ন। পি.এফ.ডি.এ ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টারের ‘ডিফারেন্টলি অ্যাবল’ শিশুদের সঙ্গে দেখা করে তাদের সঙ্গেই পুরো বিকেল কাটান জাতীয় দলের এই দুই পেসার।

Also Read - "রান না করলে কোনো চাচা-মামা আপনাকে দলে রাখতে পারবে না"


বাংলাদেশ জাতীয় দলের পৃষ্ঠপোষক রবির কল্যাণেই এই শিশু-কিশোরদের সঙ্গে মাশরাফি ও মোস্তাফিজের দেখা করার ব্যবস্থা করা হয়।

এ সময় মাশরাফি বলেন, ‘আমরা বেশিরভাগ সময়েই এই শিশুদের যথাযোগ্য সম্মান দিতে পারি না অথচ এটি তাদের প্রাপ্য। কিন্তু আমাদের মনে রাখতে হবে তারাও আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের একটি অংশ এবং যথাযোগ্য চিকিৎসা পেলে তারাও একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ পেয়ে যাবে আমাদের মাধ্যমে।’

‘শুধুমাত্র সহানুভূতি এবং সহমর্মিতার ভেতরেই আটকে থাকলে চলবে না। এই শিশুদের নিয়ে আমাদের যে ভ্রান্ত ধারণা আছে সেটিও পাল্টাতে হবে। আমি সকলকে অনুরোধ করবো সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এই শিশুদের পাশে দাঁড়াই। আমি এবং মোস্তাফিজ নয় অন্যান্য ক্রিকেটাররা তাদের নিজস্ব জায়গা থেকে এই শিশুদের সুস্থ করে তুলতে সহায়তা করবে। আপনাদেরও আহবান জানাচ্ছি প্রাপ্যটা ওদের দিতে।’

-রুশাদ রাসেল, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম.কম

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে মাশরাফি

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতলো ভারত

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

শঙ্কা কাটিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন মুস্তাফিজ

দুদকের শুভেচ্ছাদূত হলেন সাকিব