ডি ভিলিয়ার্সের অবসর না ভাঙার কারণ ব্যাখ্যা করলেন বাউচার

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আর না ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। কিংবদন্তিতুল্য এই ক্রিকেটার অবসর ভাঙার পরিকল্পনা করলেও সম্প্রতি না ফেরার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত বলে জানিয়ে দেন।

ডি ভিলিয়ার্সের অবসর না ভাঙার কারণ ব্যাখ্যা করলেন বাউচার

Advertisment

২০১৮ সালে অবসর নেওয়া ডি ভিলিয়ার্স ২০১৯ সালে অবসর ভাঙার আগ্রহ প্রকাশ করেন। মার্ক বাউচার দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলের কোচ হওয়ার পর প্রায় নিশ্চিত ছিল ডি ভিলিয়ার্সের ফেরা। বাউচার একাধিকবার ডি ভিলিয়ার্সের সাথে আলোচনাও করেন। ধারণা করা হচ্ছিল, এ বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটের দলে দেখা যাবে তাকে।

তবে শেষপর্যন্ত ডি ভিলিয়ার্স অবসরের সিদ্ধান্তেই বহাল থেকেছেন। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে দুর্দান্ত ফর্ম আর দাপটের সাথে মুগ্ধকর পারফর্ম করা এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কেন এই সিদ্ধান্ত নিলেন, সেই কারণ ব্যাখ্যা করেছেন প্রোটিয়া হেড কোচ বাউচার।

বাউচার বলেন, ‘অবসর না ভাঙার সিদ্ধান্তের পেছনে তার নিজস্ব কারণ রয়েছে, যার প্রতি আমার শ্রদ্ধা আছে। দুঃখজনকভাবে সে এখন আর দলে ফিরতে চাইছে না। দুঃখজনক বলতে হচ্ছে, কারণ এটা আমরা সবাই স্বীকার করি যে সে এখন অন্যতম সেরা একজন ক্রিকেটার।’

তরুণ যে ক্রিকেটাররা পাইপলাইন বেয়ে উঠে এসেছেন, তাদের যথার্থ সুযোগ দিতেই ডি ভিলিয়ার্স অবসর না ভাঙার সিদ্ধান্ত নেন বলে জানান বাউচার। তার ভাষায়-

‘প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যে খেলোয়াড়রা উঠে এসেছে তাদের নিয়ে সে উদ্বিগ্ন ছিল। যদিও আমার মনে হয় না তার মত খেলোয়াড়ের এমন ভাবা উচিৎ।’

২০১৮ সালের মে মাসে হুট করে অবসরের ঘোষণা দেন প্রোটিয়া ক্রিকেটার এবি ডি ভিলিয়ার্স। তার মত জনপ্রিয় ক্রিকেটার টানা দুই বছরে দুই ফরম্যাটের দুই বিশ্বকাপের আগে অবসর নিয়েছেন- ব্যাপারটি যেন বিশ্বাস হচ্ছিল না কারো। এরপর ফেরার পরিকল্পনা করলেও করোনা মহামারীর কারণে তা বারবার বাধাগ্রস্ত হয়, শেষমেশ মত পাল্টে ফেলেন তিনি।