ডেলিভারিম্যান থেকে বাংলাদেশকে হারানোর নায়ক ক্রিস গ্রিভস

রবিবার (১৭ অক্টোবর) বাংলাদেশের বিপক্ষে ঐতিহাসিক এক জয় পেয়েছে স্কটল্যান্ড। এই জয়ে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে খেলারও স্বপ্ন দেখছে দলটি। জয়ের মূল নায়ক যিনি, সেই ক্রিস গিভস কয়দিন আগেও ছিলেন একজন ডেলিভারিম্যান।

অ্যামাজনের ডেলিভারিম্যান ছিলেন বাংলাদেশকে হারানো গ্রিভস
ম্যাচ সেরার পুরস্কার হাতে ক্রিস গ্রিভস।

অ্যামাজনের ডেলিভারিম্যানের দায়িত্ব পালন করা গ্রিভস স্কটল্যান্ডের হয়ে নিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মাঠে নেমেছিলেন বাংলাদেশের বিপক্ষে। এর আগে ম্যাচ খেলেছেন মাত্র একটি। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে দিন কয়েক আগের সেই ম্যাচে ভালো করেই জায়গা নিশ্চিত করেন বাংলাদেশের বিপক্ষে ‘বিগ’ ম্যাচে।

Advertisment

সেই গ্রিভসই স্কটিশদের বাংলাদেশকে হারানোর নায়ক। অথচ খেলেছেন মাত্র ২টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ ও ৫টি টি-টোয়েন্টি। এত কম খেলার কারণও আছে। তিনি যে ক্রিকেটের লোক ছিলেন না!

গ্রিভসের- উত্থানের গল্প তুলে ধরে বাংলাদেশ ম্যাচের পর স্কটিশ অধিনায়ক কাইল কোয়েটজার বলেন, ‘আমি গ্রিভসকে নিয়ে খুবই গর্বিত। সে ক্রিকেটের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছে। বেশি দিন হয়নি, সে অ্যামাজনের ডেলিভারি পার্সেলের কাজ করত। আর এখন সে কি না বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়ের ম্যাচে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ।’

‘আমি জানি না আমার এসব বলা সে পছন্দ করবে কি না। তবে সে আজ যেখানে আছে, এর পেছনে অনেক ত্যাগ রয়েছে যা মানুষ জানে না।’

অ্যামাজনের ডেলিভারিম্যান ছিলেন বাংলাদেশকে হারানো গ্রিভস
ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বোলিং দিয়েও জয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন গ্রিভস।

ব্যাট হাতে গ্রিভসের ৪৫ রানের ইনিংস বাংলাদেশের মুঠো থেকে ধীরে ধীরে ছিনিয়ে নেয় ম্যাচ। এরপর আলো ছড়িয়েছেন বল হাতেও, শিকার করেছেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমকে। এই গ্রিভস কিন্তু স্কটল্যান্ডের কোনো চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারই নন!

কোয়েটজার বলেন, ‘গ্রিভস চুক্তির আওতায় নেই। কঠোর পরিশ্রম করে দলে জায়গা করে নিয়েছে। সহযোগী দেশগুলোতেও ভালো ক্রিকেটার আছে, সে তার প্রমাণ। তাদের শুধু নিজেকে প্রমাণের মঞ্চ দরকার।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।