ঢাকা ডায়নামাইটসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর মুস্তাফিজুর রহমান

কাঁধের অস্ত্রোপচারের পর মুস্তাফিজুর রহমান এখন পুর্নবাসন প্রকিয়ার মধ্যে আছেন। জাতীয় দলের জার্সি তে তাই এখন খেলা হচ্ছে না বাঁ-হাতি এ পেসারের, এমনকি চলতি একেএস বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগেও দর্শক হিসেবে থাকতে হচ্ছে তাঁকে। বিপিএল খেলতে না পারলেও মঙ্গলবার ঢাকা ডায়নামাইটস ও বরিশাল বুলসের মধ্যকার ম্যাচে ঢাকার ডাগ-আউটে দেখা গেছে তাঁকে।

ঢাকা ডায়নামাইটসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর মুস্তাফিজুর রহমান।

Advertisment

আর এতেই ওঠেছে অনেক প্রশ্ন! নিয়মানুযায়ী দলের ক্রিকেটার আর কতৃপক্ষ ছাড়া আর কেউই থাকতে পারবে না ডাগ-আউটে অথচ ম্যাচের পুরোটা সময়ই মুস্তাফিজকে দেখা গেল ডাগ-আউটে তাও আবার ঢাকার জার্সি গায়ে।

অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড ছাড়া ডাগ-আউটে মুস্তাফিজের অবস্থান নেওয়ার বিষয়ে বিপিএল গভ্ররনিং কমিটির সদস্য ইসমাইল হায়দার মল্লিক্র কাছে জানতে চাওয়া হনে তিনি এ প্রশ্নের সুরাহা দেন। মুস্তাফিজুর রহমান চলতি বিপিএলে তাঁর সাবেক দল ঢাকা ডায়নামাইটসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে মাঠে উপস্থিত ছিলেন বলে তিনি জানান। দলের ক্রিকেটারদের অনুপ্রেরণা যোগাতেই তাঁর ডাগ-আউটে বসা বলে ইসমাইল হায়দার উল্লেখ করেন।

আশাপাশি চলতি বিপিএলে ইঞ্জুরির জন্য মাঠের বাইরে থাকা মুস্তাফিজকে দলের অ্যাম্বাসেডর হিসেবে পেতে ঢাকা ছাড়াও আসরের নতুন দল খুলনা টাইটান্সও আবেদন করে বলে তিনি জানান। তবে গত আসরে ঢাকার হয়ে খেলার জন্য শেষ পর্যন্ত ঢাকা ডায়নামাইটসের ব্র্যান্ড আম্বাসেডর হিসেবেই তাঁকে ছাড়পত্র দেয় বিপিএল গর্ভনিং কমিঠি।

অন্যদিকে এ বিষয়ে একই উত্তর মিলেছে ঢাকা ডায়নামাইটস কতৃপক্ষের কাছ থেকেও। ঢাকা ডায়নামাইটসের ম্যানেজার আজীজুর রহমান জানান, “মুস্তাফিজুর রহমান গত আসরে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলেছিল, এ আসরে সে দুর্ভাগ্যবশত ইঞ্জুরির জন্য খেলতে পারছে না। তাই আমরা তাঁকে ঢাকা ডায়নামাইটসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেড হিসেবে নিয়োগ দিয়েছি।”