SCORE

সর্বশেষ

তবু নির্বাচকদের বিবেচনায় আছেন মাঠের বাইরে থাকা নাঈম

বিগত কয়েকদিন ধরে পারফরমেন্স সন্তোষজনক। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত চমক প্রদর্শন করছিলেন। প্রত্যাশা ছিল জাতীয় দল বা ‘এ’ দলে জায়গা ফিরে পাওয়ার। বিসিএলে নিজের দলের অধিনায়কত্ব করার সময়ই নাঈম ইসলামকে শুনতে হয় দুঃসংবাদ। তার চিকেন পক্স হয়েছে!

সেই অসুস্থতা নিয়ে মাঠের বাইরে থাকা নাঈম যেন এক পৃথিবী আক্ষেপে পুড়লেন। নাঈম বলেন, ‘আমি মনে করি, বাংলাদেশের হয়ে আবার খেলার যোগ্যতা আমার রয়েছে। নির্বাচকরাও আমাকে একেবারে হিসাবের বাইরে রাখেননি। গত বছর ‘এ’ দলের হয়ে জিম্বাবুয়ে সফরে গিয়েছিলাম। কিন্তু ভালো করতে পারিনি। এবার সামনে তো ‘এ’ দলের বেশ কিছু সিরিজ। সেখানে সুযোগ পেলে ভালো করার আপ্রাণ চেষ্টা করব। কিন্তু এমন সময়ই চিকেন পক্সটা…’

Also Read - জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু ১৩ মে

তবে নাঈমের এমন পরিস্থিতি তাকে নির্বাচকদের বিবেচনা থেকে অবশ্য সরাতে পারছে না। বরং তার এই অসুস্থতা তাকে নিয়ে নির্বাচকদের পরিকল্পনায় কোনো ছেদ আনবে না বলেই জানালেন নির্বাচক ও সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার সুমন, ‘অবশ্যই বিসিএলের ম্যাচগুলো খেলতে পারলে ওর জন্য ভালো হতো। তবে তা না হওয়ায় ‘এ’ দলের বিবেচনার বেলায় নাঈমের সুযোগ কমে গেল, আমার সেটি মনে হয় না। গত কয়েক মৌসুমে অন্তত ‘এ’ দলে সুযোগ পাওয়ার মতো যথেষ্টই করেছে নাঈম।’

মিডল অর্ডারে ব্যাট করা নাঈমের পারফরমেন্স সুমনের এতই মনে ধরেছে যে, তিনি নাঈমকে জাতীয় দলের যোগ্য বলেই মনে করছেন। তবে কম্বিনেশনের কারণে সেটি সহজে সম্ভবও নয়। হাবিবুল বাশার বলেন, ‘নাঈম যদি ওপেনার বা তিন নম্বরে খেলে এত রান করত, তাহলে প্রায় নিশ্চিতভাবেই এত দিনে জাতীয় দলে ফিরত। কিন্তু ও খেলে মিডল অর্ডারে, যেখানে মুশফিক-সাকিব-রিয়াদরা রয়েছে। এটি আসলে ওর দুর্ভাগ্য। তবে ও আমাদের পরিকল্পনায় ভালোভাবেই রয়েছে। ‘এ’ দলের সিরিজ খেললে বোঝা যাবে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার কোন পর্যায়ে রয়েছে।’

আরও পড়ুনঃ আক্ষেপ ঘুচানোর লক্ষ্যে কোহলিদের মুখোমুখি মুস্তাফিজরা

Related Articles

কাঠগড়ায় এবার ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজ’ পদ্ধতি

৬ মাসেও পরিশোধ হয়নি অলকদের বকেয়া

বদলে যাচ্ছে লঙ্গার ভার্সনের চেহারা

“ভালো করার স্পৃহা থাকতে হবে”

“আব্বা থাকলে সবচেয়ে বেশি খুশি হতেন”