তাইজুল-রাবাদার পাশে ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা

ক্যারিয়ারের প্রথম একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচেই হ্যাট্রিক করে বাংলাদেশি ক্রিকেটার তাইজুল ইসলাম ও দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার কাগিসো রাবাদার রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন ১৯ বছর বয়সী শ্রীলঙ্কান স্পিনার ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা। রোববার গল স্টেডিয়ামে সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে এই কীর্তি গড়েন তিনি।

ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা মূলত একজন অলরাউন্ডার, যিনি লেগ-ব্রেক বল করার পাশাপাশি একজন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। জিম্বাবুয়ে-শ্রীলঙ্কা পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে প্রথমবারের মতো শ্রীলঙ্কার জার্সি গায়ে মাঠে নামেন তিনি।

Also Read - পাকিস্তানে বিশ্ব-একাদশের ম্যাচে অধিনায়ক জয়াবর্ধনে


ম্যাচে মাত্র ২.৪ ওভার বল করেছেন হাসারাঙ্গা, তাতেই গড়েছেন হ্যাট্রিক করার কীর্তি। ইনিংসের ৩৪তম ওভারে হাসারাঙ্গা যখন বল করতে নামেন, জিম্বাবুয়ের রান তখন ৭ উইকেটে ১৫১। ওভারের প্রথম বলে হাসারাঙ্গার ডেলিভারিকে চারে পরিণত করেন ম্যালকম ওয়েলার।

পরের ডেলিভারিতে হাসারাঙ্গার অসাধারণ ফ্লাইট মিস করে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন ২৯ বলে ৩৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলা ওয়েলার। পরের দুই বলে গুগলি ছুঁড়ে ডোনাল্ড টিরিপানো এবং টেন্ডাই চাতারাকে সাজঘরে ফিরিয়ে নিজের ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় উইকেট তুলে নেওয়ার পাশাপাশি তাইজুল ইসলাম ও কাগিসো রাবাদার পর অভিষেক ম্যাচেই হ্যাট্রিকের গৌরব অর্জন করেন হাসারাঙ্গা। এতে মাত্র ১৫৫ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারী জিম্বাবুয়ে।

ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে এটি ৪২তম হ্যাট্রিক। চামিন্ডা ভাস, লাসিথ মালিঙ্গা, ফারভেজ মাহারুফ ও থিসারা পেরেরার পর পঞ্চম শ্রীলঙ্কান হাসারাঙ্গা, যিনি ওয়ানডেতে হ্যাট্রিক করেছেন। এছাড়াও হ্যাট্রিককারীদের মধ্যে ইতিহাসের ষষ্ঠ স্পিনার ও প্রথম লেগ-স্পিনার এই তরুণ ক্রিকেটার।

২০১৪ সালে ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচেই হ্যাট্রিক করেন বাংলাদেশি ক্রিকেটার তাইজুল ইসলাম। পরের বছর একই ভেন্যুতে বাংলাদেশের বিপক্ষে এই কীর্তি গড়েন দক্ষিণ আফ্রিকান কাগিসো রাবাদা।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন