Score

‘তামিমকে মানুষ আজীবন মনে রাখবে’

এশিয়া কাপ দুর্দান্তভাবে শুরু করলো বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে উদ্ভোধনী ম্যাচে ১৩৭ রানের বিশাল জয় পেয়েছে টাইগাররা। সংযুক্ত আরব আমিরাতের পরিবেশে এমন সূচনায় খুশি বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মূর্তজা। পাশাপাশি জানিয়েছেন আরও উন্নতি করার কথা।

 

উইকেট শিকারের পর মাশরাফির উদযাপন।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে লাসিথ মালিঙ্গার তোপে প্রথম ওভারেই ২ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর পরের ওভারে ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন তামিম। দলের এমন বিপদে ব্যাট হাতে হাল ধরেন মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ মিথুন। দুই ব্যাটসম্যান মিলে ১৩১ রানের জুটি গড়ে তোলেন। ম্যাচ শেষে মাশরাফি তাদের ধন্যবাদ দেন। তিনি বলেন, ‘মুশফিক ও মিথুনকে ধন্যবাদ। শুরুতেই দুই উইকেট হারানো সবসময়ের জন্য কঠিন কিন্তু তারা যেভাবে ব্যাটিং করেছে সত্যিই দেখতে ভালো লেগেছে। ‘

Also Read - মুশফিকের এক ইনিংসে যত অর্জন

দল বিশাল ব্যবধানে জিতলেও কিছু বিষয়ে খুশি নন বাংলাদেশ অধিনায়ক। শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে একটা সময় বিশাল স্কোর করার পথে থাকলেও পারেনি টাইগাররা। এছাড়া ফিল্ডিংয়েও উন্নতি করার কথা বলেছেন মাশরাফি, ‘আমি মনে করি, আমাদের আরও অনেক উন্নতির জায়গা আছে। আমরা যেভাবে উইকেট হারিয়েছি, এতে কাজ করা দরকার। আশাকরি, আমরা সামনে এটা ভালোভাবে সামলাতে পারবো। মিথুন ভুল সময়ে আউট হয়েছে, সে থাকলে আমরা হয়তো ২৮০-২৯০ করতে পারতাম। এছাড়া, আমাদের ফিল্ডিং আরো ভালো করা উচিত।’

১৪৪ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন মুশফিকুর রহিম।বল হাতে মাশরাফি নিয়েছেন দুইটি উইকেট। সাকিবের পকেটেও আছে একটি উইকেট। অন্যদিকে ইনজুরি নিয়ে শেষ উইকেটে ব্যাট করতে নামা তামিম তো ম্যাচের সবচেয়ে আলোচিত অংশ। দলের সিনিয়রদের এমন পারফরম্যান্সে খুশি মাশরাফি, ‘আমাদের সিনিয়র ক্রিকেটাররা যেভাবে পারফর্ম করছে, সেটা অনেক আশার সঞ্চার করবে। ‘

 

লাকমলের ডেলিভারিকে এভাবেই এক হাতে সামাল দিচ্ছিলেন তামিম। ছবি: ভিডিও থেকে সংগৃহীত

 

ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে হাতে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন তামিম ইকবাল। এরপর দলের বিপদে ৪৭তম ওভারের শেষ বলে এক হাতে ব্যাট নিয়ে উইকেটে নেমে পড়েন। মুশফিকের সাথে শেষ উইকেট জুটিতে মহাগুরুত্বপূর্ণ ৩২ রান যোগ করেন। দেশের জন্য তামিমের এমন দৃষ্টান্ত মানুষ কখনও ভুলবে না বলে মনে করেন মাশরাফি। তামিম প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন,‘আমি মনে করি, তামিমকে মানুষ আজীবন মনে রাখবে।’

[আরও পড়ুনঃ টুইটারে প্রশংসার জোয়ারে ভাসছেন তামিম ইকবাল]

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি