তামিমদের প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে বড় জয় পেল আবাহনী

0
657

ডিপিএল টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের অষ্টম ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে ৩০ রানে হারিয়েছে আবাহনী লিমিটেড। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন তামিম এবং দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন মিঠুন।

Advertisment

মুনিম শাহরিয়ারের অপরাজিত ৯২ রানের সুবাধে স্কোরবোর্ডে ১৮৩ রানে তোলে আবাহনী লিমিটেড। যার ফলে তামিম-এনামুলদের প্রাইম বাংকের লিমিটেডের সামনে দাঁড়ায় বড় রানের লক্ষ্য। আবাহনীর দেওয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারিয়ে বসে প্রাইম ব্যাংক। তৃতীয় ওভার চলাকালীন প্রথম বলেই রনিকে সাজঘরে ফেরান সাইফউদ্দিন।

অবশ্য তারপর ঘুরে দাঁড়ায় প্রাইম ব্যাংক। আর ব্যাটিংয়ে নেতৃত্ব দেন তামিম। এনামুলকে সঙ্গে নিয়ে বড় লক্ষ্য তাড়া করতে যেভাবে ব্যাটিং করা দরকার তেমনটাই করার চেষ্টা করছিলেন তামিম। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৫৩ রান তোলেন তামিম। একপাশে তামিম আগ্রাসী ব্যাটিং করলেও অন্যপাশে ধীরগতির এনামুল হককে সাজঘরে ফেরান লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম।

১৩ বলে ১১ রান করা এনামুলের বিদায়ের পর সাজঘরে ফিরেন ফিফটি হাঁকানো তামিমও। আরাফাত সানির বলে ৪১ বলে ৫৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন এ ওপেনার। তামিমের বিদায়ের পর বড় লক্ষ্য তাড়া করার কাজটা কঠিন হয়ে দাঁড়ায় প্রাইম ব্যাংকের জন্য। ৯৬ রানে চার উইকেট হারালে ম্যাচ তখন অনেকটাই আবাহনীর নিয়ন্ত্রণে চলে যায়।

শেষ ৩০ বলে প্রাইম ব্যাংকের প্রয়োজন ছিল ৭৪ রান। ১৬ ওভার শেষে বৃষ্টির হানায় বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ থাকে ম্যাচ। বৃষ্টি বন্ধ হয়ে ম্যাচ শুরু হলে দারুণ খেলতে থাকা মিঠুন থামেন দুর্ভাগ্যজনকভাবে। ১৭তম ওভারে পঞ্চম বলটিতে সুইপ করতে গিয়ে সাকিবের বলটি স্ট্যাম্পে স্পর্শ করে। ফলে ৩৪ রানেই থামে তাঁর ইনিংস।

শেষ পর্যন্ত ১৪২ রানেই থামে প্রাইম ব্যাংকের ইনিংস। সর্বোচ্চ দুটি করে উইকেট লাভ করেন তানজিম সাকিব ও আমিনুল ইসলাম এবং একটি করে উইকেট লাভ করেন সাইফউদ্দিন ও আরাফাত সানি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

আবাহনী লিমিটেড ১৮৩/৩ (ওভার ২০)

মুনিম ৯২*, শান্ত ৩০

শরিফুল ২/৩৯, কাপালি ১/৩২

প্রাইম ব্যাংক ১৪২/৬ (ওভার ১৯)

তামিম ৫৫, মিঠুন ৩৪

আমিনুল ২/২০, সাকিব ২/৩৪