Scores

তামিমের আগে শচীনও হয়েছিলেন এমন আউটের শিকার

দ্বিতীয় দিনটি পুরোপুরি বাংলাদেশের হয়ে ওঠেনি চমৎকার খেলতে থাকা তামিম ইকবালের অবাক করা রান আউটের কারণে। এ রকম রান আউট ক্রিকেটে বিরল। দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে আসা কোচকে জবাব দিতে হয়েছে সেই আউট নিয়েও।
গতকাল গলে অনেকটা একই প্রকারে রানআউট হয়েছেন তামিম ইকবাল।
আসলে দিনটি হতে পারতো তামিম ইকবালের। দুর্দান্ত ব্যাট করতে থাকা মেন্ডিসকে বিদায় করে দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিয়ে। তারপর ব্যাট হাতে নেমে খেলতে থাকেন দাপটের সাথেই। স্বাগতিকদের কোন সুযোগ না দিয়েই আদায় করে নেন আরও একটি ফিফটি।
কিন্তু তার একটু পরেই ঘটলো এমন এক ঘটনা যেটা ক্রিকেটে বিরল। রান নিতে গেলেন কিপারের হাতে বল জমা রেখেই। ফলাফল একটি আত্মঘাতী উইকেটের পতন। যার ফলে দিন শেষে চারিদিকে সমালোচনার ঝড়।
তবে তামিমের জন্য সান্তনা হতে পারেন ভারতের কিংবদন্তী শচীন। যিনি নিজেও বোকা বনেছেন একই ভাবে। সেটা ছিল ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল। শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলছিল ভারত। ইডেনের সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ২৫১ রান করে লঙ্কানরা। জবাব দিতে নেমে ১ উইকেটে ৯৮ রানে পৌঁছে যায় ভারত।
শচীন টেন্ডুলকার তখন ৬৫ রানে ব্যাট করছিলেন। বল করছিলেন সনাথ জয়সুরিয়া। একটি বল লেগ সাইডে খেললেন সনাথ। শচীন ভেবেছিলেন কালুভিতারানাকে ফাঁকি দিয়েছে বল। তিনি রানের জন্য দৌড়ালেন। কিন্তু যখন বুঝতে পারলেন কালুভিতারানার হাতে বল, তখন আর ফেরার উপায় ছিল না। স্টাম্পিং হয়েছিলেন শচীন।
উল্লেখ্য, গতকাল গলে অনেকটা একই প্রকারে রানআউট হয়েছেন তামিম ইকবাল। ৫৭ রানে ব্যাট করার সময় তিনিও বুঝতে পারেননি, বল উইকেটরক্ষক ডিকওয়েলার হাতে। রান নেওয়ার জন্য দৌড় দিলেন; কিন্তু রানআউট হওয়ার পর বুঝতে পার বোকা বনেছেন তিনি। ১১৮ রানের জুটি ভেঙে তামিমের আউট হওয়ার ধরন দেখে বাংলাদেশের সমর্থকরাও হতবাক।
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

সাকিব-তামিমের পাশে বসলেন মুশফিক

এত বড় রান তাড়ায় অভ্যস্ত নন তামিম!

এখনো সেমিফাইনালে যাওয়ার সুযোগ দেখছেন তামিম

৩৮০ রান অনেক বেশি!

লিটন আমাকে চাপে পড়তে দেয়নি: সাকিব