তামিম-মিঠুনের ব্যাটে সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতল প্রাইম ব্যাংক

0
862

মিরপুরে ডিপিএল টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের ১০ম ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে ৬ উইকেটের জয় পেয়েছে প্রাইম ব্যাংক। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই রইল দলটি।

Advertisment

বাকি দুই ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও বাগড়া দেয় বৃষ্টি। ২০ ওভারের ম্যাচে তাই ৮ ওভার কমিয়ে আনা হয়। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নামে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। দারুণ শুরুর পর বিদায় নেন আগের ম্যাচের নায়ক মিজানুর। এই ম্যাচে শরিফুলের প্রথম ব্রেক-থ্রুর শিকার হন নুরুজ্জামান। তবে ১২ ওভারের ম্যাচে দলটির হাল ধরেন জুনায়েদ সিদ্দিকী। ২৮ বলে ২৪ রানের ইনিংস খেলেন এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

তাঁকেও সাজঘরে ফেরান শরিফুল। শেষদিকে মাইশুকুর রহমানের ১২ বলে ১৫ রানের অপরাজিত ইনিংস এবং আলাউদ্দিন বাবুর ৫ বলে ঝোড়ো ১৪ রানের ইনিংসে ১২ ওভারে ৭৪ রান সংগ্রহ করে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট লাভ করেন শরিফুল ইসলাম।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই রনি তালুকদারকে হারায় প্রাইম ব্যাংক। আলাউদ্দিনের করা বলে মেহেদীর হাতে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। তবে ক্রিজে নেমেই ঝোড়ো ইনিংসের ইঙ্গিত দেন প্রাইম ব্যাংকের অধিনায়ক এনামুল হক বিজয়। তবে তাঁর ছোট ঝোড়ো ইনিংসটি থামান আলাউদ্দিন। ৮ বলে ১৫ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরেন তিনি।

লক্ষ্য সহজ হওয়ায় ব্যাট হাতে তেমন ঝুঁকি নিতে দেখা যায়নি তামিম ও মিঠুনকে। তাঁদের ব্যাটিংয়ে ধীরে ধীরে জয়ের দিকে এগোতে থাকে প্রাইম ব্যাংক। দলীয় ৬৮ রানে আলাউদ্দিনের পেসে পরাস্থ হন তামিম। তিনি সাজঘরে ফিরেন ২৬ বলে ২৯ রান করে। জয় থেকে যখন ৬ রান দূরে তখন রাহাতুলের বলে ডাউন দ্য উইকেটে এসে মারতে গিয়ে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন ২৮ রান করা মিঠুন।

শেষ পর্যন্ত জয় পেতে কিছুটা বেগ পেতে হয়েছে প্রাইম ব্যাংককে। ম্যাচ গড়িয়েছে শেষ ওভার পর্যন্ত। দুই বল বাকি থাকতেই ব্রাদার্সের বিপক্ষে জয় তুলে নেয় প্রাইম ব্যাংক।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ব্রাদার্স ইউনিয়ন ৭৪/৩ (ওভার ১২)

জুনায়েদ ২৪, মাইশুকুর ১৫*

শরিফুল ২/২৪, নাহিদুল ১/৪\

প্রাইম ব্যাংক ৮৪/৪ (ওভার ১১.৪ )

তামিম ২৯, মিঠুন ২৮

আলাউদ্দিন ৩/১৯