‘তামিম-মুশফিকদেরও কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হতে হবে’

0
947

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কঠিন সময় পার করছেন বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। বর্তমানে মাশরাফি যে কঠিন বাস্তবতার শিকার হচ্ছেন মুশফিক, তামিম, রিয়াদরা চার বছর পর একই পরিস্থিতির সম্মুখীন হবেন বলে মনে করছেন দলের এ ওয়ানডে অধিনায়ক।

Advertisment

সময়টা ভালো যাচ্ছে না মাশরাফি। একটা সময় যে মাশরাফিকে ছাড়া বাংলাদেশ দল কল্পনা করা যেত না বর্তমানে তার চিত্র পুরোপুরি ভিন্ন। এখন তো মাশরাফিকে অবসরে পাঠানোর চিন্তা-ভাবনাও করছে ক্রিকেট সমর্থকরা। পঞ্চপাণ্ডবদের একজন মাশরাফি। বাকি চার জনের মধ্যে সাকিব নিষেধাজ্ঞা কাটাচ্ছেন। তামিম তো দীর্ঘ ছুটি কাটিয়ে পাকিস্তান সফর দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন।

বাকি দুই পাণ্ডব- মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ , দুইজনই দলের নিয়মিত সদস্য। ব্যাট হাতে বর্তমানে পারফর্মও করছেন তারা। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের আগে সংবাদ সম্মেলনে কঠিন বাস্তবতার কথা তুলে ধরলেন মাশরাফি। তিনি যে বর্তমান পরিস্থিতির সম্মুখীন হচ্ছেন, একটা সময় তামিম-মুশফিকদেরও এই কঠিন সময়ের সম্মুখীন হতে হবে বলছেন মাশরাফি।

“একজন ক্রিকেটারের ক্ষেত্রে একটা সময় আসে যখন প্রত্যেকটা দিনই তার জন্য চ্যালেঞ্জিং। আজকে থেকে চার বছর পর তামিম, মুশফিক কিংবা রিয়াদ- তাদেরও কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হতে হবে। তরুণ ক্রিকেটার যারা থাকবে সবাই চাইবে তাদের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে। এইটা কিন্তু একটি প্রক্রিয়া। এইটা নিয়ে চিন্তার এতো কিছু দেখি না।”

দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে নামছেন মাশরাফি। একদিনে অবসর, অন্যদিকে বিশ্বকাপে বাজে ফর্ম। সবমিলিয়ে মাশরাফির জন্য পরিস্থিতিটা বেশ কঠিন। সংবাদ সম্মেলনে এটিও মনে করিয়ে দিলেন দলের এ ওয়ানডে অধিনায়ক।

“আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রত্যেকটা ম্যাচেই চাপ থাকে। মুশফিক ২০০ করেছে শেষ ম্যাচে, পরের ম্যাচে যখন ব্যাটিং করতে নামবে তখব একটা চাপ কাজ করেই। পরিস্থিতিরও একটা চাপ থাকে, সেটি সবাইকে সামলাতে হবে। আমার ব্যাপারটা হয়ত একটু ভিন্ন দিকে চলে গিয়েছে। পারফর্ম করেনি তাই জটিল জায়গায় আছে। কিন্তু এইটা নিয়ে ভেবে তো আমি বের হতে পারব না। আমি গ্যারান্টি দিয়েও বলতে পারব না কালকে পাঁচ উইকেট পেয়ে সব শেষ করে দিব, তাতে তো কিছুই শেষ হবে না।”