SCORE

সর্বশেষ

তামিম-মুশফিকের বিকল্প মিঠুন

সিরিজের আগেই অধিনায়ক সাকিবের ইনজুরি, ১৫ সদস্যর দলে তাঁকে দলে রেখে স্কোয়াড ঘোষণা করলেও ত্রিদেশীয় সিরিজে আঙুলে চোট পাওয়া সাকিব আল হাসানকে নিয়ে শঙ্কা ছিল। অবশ্য প্রথম টি-টোয়েন্টিতে না খেলার বিষয় জানিয়েছিলেন নিজেই। সাকিবের পর জাতীয় দলের ক্যাম্পে আবারো ইনজুরির হানা।

তামিম-মুশফিকের বিকল্প মিঠুন

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচকে সামনে রেখে অনুশীলনের সময় হাতে চোট পান ওপেনার তামিম ইকবাল। পরবর্তীতে অনুশীলনের সময় কবজির সমস্যায় পড়েন মুশফিকুর রহিম। দলের দুই গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারের ইনজুরি বড় চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য। ইনজুরির কারণে প্রথম ম্যাচে না ও খেলতে পারেন এই দুই ক্রিকেটার।

Also Read - তামিম-মুশিকে নিয়ে আশাবাদী রিয়াদ

তবে এখনি আশা হারাচ্ছে না টিম ম্যানেজমেন্ট। ম্যাচের আগ পর্যন্ত এই দুই ক্রিকেটারকে নিয়ে আশাবাদী টিম ম্যানেজমেন্ট। অবশ্য ঝুঁকিও নিতে চাচ্ছেন না টিম ম্যানেজমেন্ট। তামিম-মুশফিক শেষ পর্যন্ত না খেলতে পারলে তাঁদের বিকল্প হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুনকে। জানা যায়, দলে ডাকা হয়েছেন মিঠুনকে।

বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম ঘরোয়া আসর ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক বিপিএল টি-টোয়েন্টিতে ব্যাট হাতে নিজেকে প্রমাণ করেছিলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। অন্য কিপার- ব্যাটসম্যানের চেয়ে এগিয়ে ছিলেন তিনিই। ছিলেন বিপিএলের এবারের আসরে সেরা পাঁচ রান সংগ্রাহকের তালিকায়। ব্যাট হাতে পাশাপাশি স্টাম্পের পেছনেও বেশ সফল ছিলেন মিঠুন।

ব্যাট হাতে ১৫ ম্যাচে ২৯ গড়ে ৩২৯ রান করেছিলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান, ফিফটি একটি। বিপিএলে অনবদ্য পারফরম্যান্সের পর বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে সম্মিলিত ত্রিদেশীয় সিরিজের বাংলাদেশ দলে ডাক পেয়েছিলেন মিঠুন। তবে প্রথম চার ম্যাচে নামার সুযোগ হয়নি তাঁর। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালে নামলেও ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি তিনি।

জাতীয় দলের হয়ে ওয়ানডেতে নামা হলেও, টি-টোয়েন্টিতে শেষবার খেলেছিলেন ২০১৬ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। বাংলাদেশের হয়ে মোট ১২টি টি-টোয়েন্টি খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছেন এই ব্যাটসম্যানের। ১২ ম্যাচে ১০ গড়ে ৮৫ রান করেন মিঠুন।

আরও পড়ুনঃ প্রশ্নবোধক চিহ্ন দূর করতে চান রিয়াদ

Related Articles

“ভালো করার স্পৃহা থাকতে হবে”

এশিয়া কাপে তামিমের ‘প্রথম লক্ষ্য’ দ্বিতীয় রাউন্ড

‘সঙ্গীহীনতা’য় হতাশ নন তামিম

ম্যাকেঞ্জির সাথে কাজ করা নিয়ে রোমাঞ্চিত তামিম

মাশরাফিই ছিলেন নেপথ্যের কারিগর