Score

তিন অর্ধশতকে চড়ে লড়াকু সংগ্রহ সিলেটের

জাতীয় ক্রিকেট লিগে রাজশাহীতে টায়ার-২ এর ম্যাচের প্রথম দিনে ব্যাটিংয়ে নেমে সিলেট বিভাগের তিনজন অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন। এ তিন অর্ধশতকে ভর করে ৯ উইকেটে ২৯২ রান করেছে সিলেট বিভাগ। তবে অর্ধশতকের পর ইনিংস লম্বা করতে পারেনি কেউ। তাই আরও বড় স্কোর দাঁড় করানোর সম্ভাবনা জাগলেও তা আর হয়নি।

তিন অর্ধশতকে চড়ে লড়াকু সংগ্রহ সিলেটের
টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা মেট্রো। ব্যাটিংয়ে নেমে দেখেশ্নে খেলতে থাকেন দুই ওপেনার শাহতাজ আহমেদ এবন অধিনায়ক ইমতিয়াজ হোসেন। উদ্বোধনী জুটিতে দলকে ৮৯ রানে ভিত গড়ে দেন তারা। ঢাকা মেট্রোকে প্রথম সাফল্য এনে দেন বাঁহাতি ফাস্ট বোলার কাজী অনিক। ৮৮ বল খেলে ৩১ রনা করে কাজী অনিকের বলে বোল্ড হন ইমতিয়াজ হোসেন।

ইমতিয়াজ হোসেনের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ টিকেননি শানাজ আহমেদ। অর্ধশতুক তুলে নেওয়া শানাজ আহমেদ ফিরে যান ৬০ রান করে। দলীয় ১০৩ রানের মাথায় মোহাম্মদ আশরাফুলের বলে বোল্ড হন শানাজ আহমেদ। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ১২ টি চারে।

এরপর সিলেট বিভাগকে হতাশ করেন রাজিন সালেহ। রাজিন সালেহকে ইনিংস বড় করতে দেননি শহিদুল ইসলাম। ১০ রান করে উইকেটরক্ষক জাবিদ হোসেনের হাতে ক্যাচ দেন রাজিন সালেহ। এক প্রান্ত আগলে রাখা জাকির হাসান পান অর্ধশতকের স্বাদ। তবে অর্ধশতকের পর এগিয়ে যেতে পারেননি। ১৬০ রানের মাথায় ফিরেন সৈকত আলির শিকার হয়ে। তার ৫০ রানের ইনিংসে ছিল ৯ টি চার।

Also Read - নাঈমের স্পিন বিষে নীল ঢাকার ব্যাটসম্যানরা

অলক কাপালি এবং শাহানুর রহমান যোগ করেন ৩৫ রান। এ জুটি ভাঙেন আসিফ হোসেন। অলক কাপালিকে ফিরিয়ে দেন আসিফ। ৪৯ বলে ২০ রান করেন অলক কাপালি। জাকের আলিকে সাথে নিয়ে শাহানুর যোগ করেন আরো ৩৩ রান। এ জুটি ভাঙেন আরাফাত সানি। ১৫ রান করে আরাফাত সানির বলে জাবিদের হাতে ক্যাচ দেন জাকের আলি। নিজের পরের ওভারে এনামুল হক জুনিয়রকে বোল্ড করেন আরাফাত সানি। ৫ রান করে সজাঘরে ফিরেন এনামুল হক জুনিয়র।

জুটিগুলো থিতু হয়ে ভেঙে যাওয়ায় বড় স্কোরের সম্ভাবনা কমে যায় সিলেট বিভাগের। মাঝারি জুটিগুলোকে বড় জুটিতে রূপদানে ব্যর্থ হন সিলেট বিভাগের ব্যাটসমযানরা।

অষ্টম উইকেটে প্রতিরোধ গড়েন আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি। এক প্রান্ত আগলে রাখা শাহানুরের সাথে গড়েন ৩৩ রানের জুটি। বেশ দ্রুতগতিতে রান তুলেন আবু জায়েদ। ২০ বলে ২৬ রানের ইনিংসে মারেন ৪ টি চার এবং ১ টি ছয়। দলীয় ২৬৯ রানের মাথায় মোহাম্মদ আশরাফুলের বলে সাজঘরে ফিরেন আবু জায়েদ।

এ  ইনিংসে সিলেট বিভাগের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে অর্ধশতক পূর্ণ করেন শাহানুর রহমান। তবে দিনের শেষ ওভারে এসে বিদায় নেন তিনি। কাজী অনিকের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফিরে যান শাহানুর রহমান। ১০৩ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কার সাহায্যে ৫৪ রান করেন শাহানুর রহমান। দিনের শেষ ওভারে ক্রিজে ঘাঁটি গেড়ে থাকা শাহানুর রহমানকে ফিরিয়ে দিয়ে ঢাকা মেট্রোকে স্বস্তি দেন কাজী অনিক।

প্রথম দিনশেষে সিলেট বিভাগের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ২৯২ রান। ম্যাচের দ্বিতীয় দিন ব্যাট হাতে নামবেন খালেদ আহমেদ এবং ইবাদত হোসেন। খালেদ আহমেদ ৫ রান এবং ইবাদত হোসেন ৪ রান করে অপরাজিত রয়েছেন।

ঢাকা মেট্রোর হয়ে দুইটি করে উইকেট পেয়েছেন কাজী অনিক, আরাফাত সানি এবং মোহাম্মদ আশরাফুল। একটি করে উইকেট নিয়েছেন শহীদুল ইসলাম, সৈকত আলি এবং আসিফ হোসেন।

দিনশেষে বড় ইনিংসের অভাবের আফসোশ থাকবে সিলেট বিভাগের। তিন অর্ধশতক হাঁকানো ব্যাটসম্যান কেউ বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি পঞ্চাশের পর।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ  প্রথম দিনশেষে, 

সিলেট বিভাগঃ ২৯২/৯, প্রথম ইনিংস (৯০ ওভার)
শানাজ ৬০, শাহানুর ৫৪, জাকির ৫০, আবু জায়েদ ২৬
কাজী অনিক ২/৫৩, আশরাফুল ২/৫৬


আরো পড়ুনঃ  নাঈমের স্পিন বিষে নীল ঢাকার ব্যাটসম্যানরা


 

Related Articles

জাতীয় ক্রিকেট লিগে ব্যাটে-বলের সেরা পাঁচ

রানার্স আপ হলো রংপুর বিভাগ

শতক হাঁকালেন শামসুর রহমান

ক্যারিয়ারের শেষ ইনিংসেও রঙিন রাজিন

জাতীয় লিগের শিরোপা জিতল রাজশাহী বিভাগ