Scores

তিন বিভাগেই সেরাটা চান বোর্ড সভাপতি

Nazmul Hasan Papon while talking with media

দরজায় কড়া নাড়ছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। প্রায় দশ বছর পর আইসিসির সেরা দলগুলো নিয়ে আয়োজিত এই আসরে খেলছে বাংলাদেশ। যদিও বাংলাদেশ পড়েছে কঠিন গ্রুপে- গ্রুপ ‘এ’তে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মোকাবেলা করতে হবে মাশরাফি বিন মর্তুজার দলকে।

তবে কঠিন গ্রুপে পড়লেও ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি মনে করেন, ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং তিন বিভাগেই ভালো করতে পারলে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে আশানুরূপ ফল কড়া সম্ভব।

Also Read - সেই হার এখনো পোড়ায় শচিনকে


বোর্ড সভাপতি বলেন, আমরা এমন একটি গ্রুপে পড়েছি, যারা এই কন্ডিশনে ভালো খেলে। সেদিক থেকে আমাদের জন্য চ্যাম্পিয়নস ট্রফি একটু কঠিন। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের এখন কোনো মূল্য নেই। দলীয় পারফরম্যান্স খুব গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ যদি দলীয় পারফরম্যান্স প্রদর্শন করতে পারে, তাহলে ভালো রেজাল্ট সম্ভব। আমাদের কোনো একটি বিভাগে ভালো করলে হবে না। আমাদের সব বিভাগেই সেরা খেলা খেলতে হবে। দলীয় পারফরম্যান্স প্রদর্শন করতে পারলে ভালো ফলাফল সম্ভব।

দীর্ঘদিন পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে জায়গা করে নেওয়া বাংলাদেশ দল যোগ্যতার দিক থেকে পিছিয়ে নেই জানিয়ে তিনি বলেন, আমি মনে করি বর্তমান দলটা অনেক বেশি যোগ্য। তারা প্রতিপক্ষের বিষয়ে অনেক বেশি জানে। এই জিনিসগুলো আগের খেলোয়াড়দের মধ্যে এতোটা ছিল না। সবমিলিয়ে বাংলাদেশ খুব ভালো অবস্থানে রয়েছে। বাংলাদেশ দল এখন কাউকে ভয় পায় না। অন্যরা ভয় পেতে পারে। এখন আমরা যেভাবে জিতছি, অনেক প্রতিপক্ষকে গুড়িয়ে দিয়ে।

তবে সব সমীকরণ-পরিসংখ্যান বাদ দিয়ে জয়ের জন্যই খেল্বে বাংলাদেশ, এমনটাই জানালেন পাপন। আর সেক্ষেত্রে তিনি গুরুত্ব দিচ্ছেন ব্যাটিং-বোলিং দুই ইউনিটের উপরই, আমরা জেতার জন্যই খেলবো। আগের কোনো স্মৃতিই আমরা মাথায় রাখছি না। এই ধরনের দলের বিপক্ষে জিততে গেলে রান করতে হবে। আগে ব্যাটিং করলে ৩০০ কাছাকাছি রান করতে হবে। বোলিং করলে শুরুতেই দুই একটা ব্রেক থ্রু দিতে হবে।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বৃহস্পতিবারই বোনাস পাচ্ছেন ক্রিকেটাররা

পজিশন পরিবর্তনে ইমরুলের হতাশা

মানসিক বিশ্রামে স্বস্তি খুঁজছেন সৌম্য

মতামতঃ ঘোলা করে জল না খাওয়ার অনুরোধ

গাঙ্গুলি, আকরাম, মরগ্যানের কণ্ঠে বাংলাদেশের প্রশংসা