Scores

তুষার-রাজ্জাককে বাদ দিতেই ফিটনেস টেস্টের বাধ্যবাধকতা!

ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশের শীর্ষ দুই ক্রিকেটার তুষার ইমরান ও আব্দুর রাজ্জাক। একজন একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে ১০ হাজার রানের মালিক, অপরজন একমাত্র বোলার যার ঝুলিতে আছে ৫০০ উইকেট। তবে তাদের দুইজনকে ছাঁটাই করতেই নাকি ঘরোয়া ক্রিকেটে শুরু হয় বিপ টেস্টের প্রচলন!

তুষার-রাজ্জাককে বাদ দিতে বিপ টেস্টের প্রচলন!

এমন বিস্ফোরক দাবি করেছেন দুই ক্রিকেটারের একজন তুষার ইমরান। রাজ্জাক নির্বাচক হয়ে বিসিবিতে যোগ দিয়েছেন। তুষার এখনও বর্তমান খেলোয়াড়ের ভূমিকায়। যে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট তাকে চূড়ায় তুলেছে, সেখানেই তিনি ধীরে ধীরে ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন।

Also Read - নান্নু ভাইয়ের ক্যারিয়ারের রান আমি এক সিজনেই করেছি : তুষার

২০২০ সালে জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) ও বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) খেলার জন্য বাধ্যতামূলক ছিল ফিটনেস টেস্ট। বিপ টেস্টের মাধ্যমে যাচাই করা সেই পরীক্ষায় তুষার অনুত্তীর্ণ থাকলে বিসিএলে অংশ নেওয়া হয়নি। তুষার মনে করেন, তাকে ও রাজ্জাককে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে বাদ দিতেই বিপ টেস্টের নামে কঠিন এই ফিটনেস টেস্ট নেওয়া হয়েছিল।

বিডিক্রিকটাইমকে তুষার বলেন, ‘এখন তো ফিটনেস ট্রেনিং হয়। ১-২ বছর আগে বিসিএল হয়েছিল, আমি আগের আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলাম। শুধু ফিটনেসের কারণে আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। তখন বিসিএল খেলার জন্য ফিটনেস টেস্ট লাগবে এটা বলাও হয়নি।’

‘আমার মনে হয় দুইজন সিনিয়র ক্রিকেটারকে বাদ দেওয়ার জন্য বিপ টেস্ট নেওয়া হয়েছে। রাজ্জাক কোনোভাবে পাশ করে ফেলে কিন্তু আমি ঐ টুর্নামেন্ট খেলতে পারিনি। আনফিট বলে ঘোষণা করা হয়েছে।’

তুষার মনে করেন, ফিটনেসের বদলে পারফরম্যান্সকেই পরবর্তী যাচাইয়ের বেঞ্চমার্ক হিসেবে দেখা উচিৎ। তার ভাষায়, ‘ফিটনেস তো পারফরম্যান্সেরই অংশ। এটা পরে আসা উচিৎ। কেউ শারীরিকভাবে ফিট, কেউ মানসিকভাবে। পারফরম্যান্সের ওপরেই প্রাধান্য দেওয়া উচিৎ।’

‘আমি যদি রান করতে থাকি, ৯০ ওভার ফিল্ডিং করতে পারি, তাহলে ফিটনেস কোন কাজে লাগবে? মাঠের ভেতরে কে কতটুকু ফিট সেটা দেখা উচিৎ। বাইরে সারাদিন দৌড়াচ্ছেন মাঠে গিয়ে কিছু করছেন না… তাই পারফরম্যান্স বিবেচনা করা উচিৎ।’

বিডিক্রিকটাইমকে দেওয়া তুষার ইমরানের পুরো সাক্ষাৎকার দেখুন-

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

জাতীয় দলের জায়গা কারো জন্যই স্থায়ী না : রাজ্জাক

জিম্বাবুয়েতে সাফল্য পাওয়ার টোটকা দিলেন রাজ্জাক

জিম্বাবুয়েতে রাজ্জাকের সার্ভিসও পাবেন সাকিব-মিরাজরা

জাতীয় দলের দরজা সবার জন্য খোলা : রাজ্জাক

উইকেট নয়, রাজ্জাকের কাঠগড়ায় আবহাওয়া