Scores

দক্ষিণ আফ্রিকাকে ম্যাচে ফেরালেন স্পিনাররা

পাকিস্তানে সময়টা ভালো কাটছে না দক্ষিণ আফ্রিকার। স্বাগতিকরা ইতোমধ্যে ২০০ রানের লিড পেয়েছে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ম্যাচে ফিরিয়েছেন স্পিনাররা। প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের ২৭২ রানের জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হয় ২০১ রানে। তৃতীয় দিন শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১২৯ রান।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে বাঁচিয়ে রাখলো স্পিনাররা

প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ভালো করতে পারেননি দক্ষিণ আফ্রিকার কোনো ব্যাটসম্যানই। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ অপরাজিত ৪৪ রান করেন টেম্বা বাভুমা। এছাড়া ভিয়ান মুল্ডার ৩৩ ও এইডেন মারক্রাম ৩২ রান করেন। দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হয় ২০১ রানে।

Also Read - চট্টগ্রামকে ঘরের মত মনে হচ্ছে কর্নওয়ালের


পাকিস্তানের পক্ষে ৫ উইকেট শিকার করেন পেসার হাসান আলি। দীর্ঘদিন পরে টেস্ট দলে ফিরেই বাজিমাত করেছেন তিনি। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন নোমান আলি, শাহীন আফ্রিদি ও ফাহিম আশরাফ। ফলে প্রথম ইনিংসেই ৭১ রানের লিড পেয়ে যায় পাকিস্তান।

প্রথম ইনিংসেই ভালো লিড পেয়ে গেলেও পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংটা ভালো হচ্ছে না। শুরু থেকেই পাকিস্তান শিবিরে আঘাত হানতে থাকেন দক্ষিণ আফ্রিকানরা। রানের খাতা খোলার আগেই ইমরান বাটকে আউট করেন কাগিসো রাবাদা। আবিদ ও বাবর আজমকে শিকার করেন কেশব মহারাজ। ৪৫ রানে তিনটি উইকেট হারায় পাকিস্তান।

পরের তিনটি উইকেটই শিকার করেন জর্জ লিন্ডে। তিনি ফেরান আজহার আলি, ফাওয়াদ আলম ও ফাহিম আশরাফকে। আঙুলে চোট নিয়েই এই ম্যাচে বোলিং করেছেন লিন্ডে এবং বল হাতে তিনি সফলও হয়েছেন। ম্যাচের মাঝেই বাবর আজমের একটি শট আটকানোর সময় আঙুলে ব্যথা পেয়েছিলেন এই বাঁহাতি স্পিনার।

পাকিস্তান দিন শেষ করেছে ৬ উইকেটে ১২৯ রান নিয়ে। তাদের লিডের পরিমাণ ২০০ রান। ক্রিজে অপরাজিত আছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান ও হাসান আলি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাকিস্তান ২৭২/১০ (১ম ইনিংস)

দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১/১০ (১ম ইনিংস)
বাভুমা ৪৪*, মুল্ডার ৩৩, মারক্রাম ৩২;
হাসান ৫/৫৪।

পাকিস্তান ১২৯/৬ (৫১ ওভার)
আজহার ৩৩, ফাহিম ২৯, রিজওয়ান ২৮*, বাবর ৮, ফাওয়াদ ১২;
লিন্ডে ৩/১২, মহারাজ ২/৭৪, রাবাদা ১/৪;

পাকিস্তান ২০০ রানে এগিয়ে।

Related Articles

লকুহেতিগেকে ‘৮’ বছরের নিষেধাজ্ঞা দিল আইসিসি

বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা নিয়ে মুখ খুললেন ডি ভিলিয়ার্স

ব্যর্থতার সব দায়ভার নিজের কাঁধে নিলেন বাউচার

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের মিডল অর্ডারে মালিককে চান আফ্রিদি

জিম্বাবুয়ের টি-টোয়েন্টি দলে ‘৩’ নতুন মুখ