দলের সাথে যোগ দিলেন হেরাথ-প্রিন্স, অপেক্ষায় সাকিব-সাদমান

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ দল পাড়ি জমিয়েছে হারারেতে। নতুন মিশন শুরুর আগে নতুন দুই কোচের দেখাও পেয়ে গেছে দল। টাইগাররা হারারেতে পৌঁছানোর আগেই দলের সাথে যোগ দিয়েছেন রঙ্গনা হেরাথ ও অ্যাশওয়েল প্রিন্স। তবে এখনও দলের সাথে যোগ দেওয়ার অপেক্ষায় দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও সাদমান ইসলাম। 

দলের সাথে যোগ দিলেন হেরাথ-প্রিন্স, অপেক্ষায় সাকিব-সাদমান

Advertisment

হেরাথ ও প্রিন্সকে এ সপ্তাহে বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচ ও ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সাথে চুক্তিবদ্ধ হওয়া হেরাথ জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়েই স্পিনারদের নিয়ে কাজ করা শুরু করবেন। প্রিন্স ব্যাটিং কোচ হিসেবে কাজ করবেন শুধু জিম্বাবুয়ে সিরিজে। অবশ্য বোর্ড সন্তুষ্ট হলে চুক্তির মেয়াদ বাড়বে দুজনেরই।

দীর্ঘ যাত্রা শেষে বাংলাদেশ টেস্ট দল বুধবার (৩০ জুন) হারারেতে পৌঁছায়। জিম্বাবুয়ে যাওয়ার আগে ক্রিকেটারদের বহরটি পা রেখেছে কাতারের দোহা ও দক্ষিণ আফ্রিকা জোহানেসবার্গে। হেরাথ কাতারে এবং প্রিন্স নিজ দেশের শহর জোহানেসবার্গে দলের সাথে যোগ দেন।

দুই কোচ দলের সাথে যোগ দিলেও এখনও দলের সাথে যোগ দেওয়া হয়নি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও ওপেনার সাদমান ইসলামের। সাকিব ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) এর সুপার লিগের আগে পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে পরিবারের সাথে সময় কাটানোর পর বুধবারই (৩০ জুন) দলের সাথে যোগ দেওয়ার কথা।

সাকিবের মত আলাদাভাবে জিম্বাবুয়ে গিয়ে দলের সাথে যুক্ত হবেন সাদমানও। তিনিও বুধবার হারারেতে স্কোয়াডের সাথে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। ভিসা জটিলতায় দলের সাথে উড়াল দিতে পারেননি তিনি।

জিম্বাবুয়েতে কোয়ারেন্টিনের ঝামেলা নেই বাংলাদেশের। তাই বিশ্রাম শেষে ১ জুন থেকেই দল নেমে যাবে অনুশীলনে। ৭ জুলাই একমাত্র টেস্টের আগে প্রস্তুতির বেশি সুযোগ নেই। তাই প্রস্তুতির জন্য যে কয়টা দিন পাওয়া যায় তার পুরোটাই কাজে লাগাতে চায় টাইগাররা। ৭ জুলাই একমাত্র টেস্ট শুরু হবে। টেস্ট শেষে দুই দল খেলবে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি। সীমিত ওভারের ম্যাচগুলোও হারারেতেই অনুষ্ঠিত হবে।