Scores

দলের স্বার্থে দুই দিনেই বোনের মৃত্যুশোক কাটিয়ে ওঠেন আকবর

শোককে শক্তিতে পরিণত করার আদর্শ উদাহরণ যেন আকবর আলী। তারুণ্যের উদ্যম নিয়ে বাংলাদেশকে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জেতানো উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের বলিষ্ঠ নেতৃত্ব প্রশংসা কুড়িয়েছে সবার। তবে বিশ্বকাপ চলাকালেই অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়কের সাথে ঘটে গেছে এমন কিছু, যা মেনে নেওয়া যে কারও জন্য কঠিন।

দলের স্বার্থে দুই দিনেই বোনের মৃত্যুশোক কাটিয়ে ওঠেন আকবর



বছরের শুরু দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপ চলাকালেই আকবর হারান তার বোনকে। জিম্বাবুয়ে ও স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দল তখন রীতিমত উড়ছে। গ্রুপ পর্বের খেলায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের ২ দিন আগে আকবরের বোন সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এই খবর তৎক্ষণাৎ জানানো হয়নি আকবরকে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হলে বাংলাদেশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ওঠে কোয়ার্টার ফাইনালে। তখনই আকবরকে জানানো হয় বোনের মৃত্যু সংবাদ।

Also Read - বিশ্বকাপ-আইপিএল দুই-ই সম্ভব, বলছেন গাভাস্কার





আপন বোনের মৃত্যুর খবরে স্বভাবতই ভেঙে পড়েছিলেন আকবর। তবে পেশাদারিত্বের টানে মনোবল শক্ত রেখেই থেকে গেছেন দক্ষিণ আফ্রিকায়, বিশ্বকাপ দলের সাথে। তিনি যে দলের নেতা! হুট করে দলছুট হওয়া কোনোভাবেই মানায় না তাকে। শুধু তাই নয়, মাত্র দুইদিনের নিজেকে সামলে আবারো দলের হাল ধরেন, স্বাভাবিক হওয়া শুরু করেন।

বিডিক্রিকটাইম এর সাথে আলাপকালে এমনটিই জানিয়েছেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের পেসার তানজিম হাসান সাকিব। তার মতে, আকবরের ঘুরে দাঁড়ানোও বিশ্বকাপজয়ী দলটিকে আরও প্রেরণা দিয়েছে। সাকিব বলেন, ‘এমন ট্র্যাজেডি কেউ প্রত্যাশা করে না। কিন্তু মৃত্যু তো কারও হাতে নেই। একটা মানুষের বোন মারা গেলে অবশ্যই খারাপ লাগবে। কিন্তু আকবর ভাই মাত্র দুই দিন সময় নিয়েছে স্বাভাবিক হতে। দুই দিনেই নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করে নিয়েছেন। আল্লাহ ভালোর জন্য সবকিছু করেন, যা হয়েছে তা না ভেবে এখন সামনে এগিয়ে যেতে হবে- এমন ভেবেছিলেন হয়ত। দুই দিন পরই আগের মত প্রাণবন্ত হয়ে আমাদের মাঝে ফিরেছেন। এটা আমাদের আরও অনেক প্রেরণা দিয়েছে- আকবর ভাই এভাবে ফিরেছে, আমাদের আরও ভালো করতে হবে।’ 






বয়সে ২ বছরের বড় আকবরকে অনেক আগে থেকেই চেনেন সাকিব, বিকেএসপির মাধ্যমে। আকবরের নেতৃত্বগুণও তাই দীর্ঘদিন ধরে জানেন সাকিব। তিনি জানান, ‘বিকেএসপিতে অনেক আগে থেকেই আকবর ভাইকে দেখেছি, উনি সবসময় দায়িত্ব নিতে পছন্দ করত। রমজান মাসে বিকেএসপিতে ইনডোর ক্রিকেট হত, সেখানেও তিনি অধিনায়ক থাকতেন। সব জায়গায়ই দেখেছি, উনি দায়িত্ববোধ খুব ভালো পালন করে আসছেন। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের পুরো দায়িত্ব উনার ওপর- এটাও উনি জানতেন।’

সেই আকবরই শেষপর্যন্ত বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক হয়ে দাঁড়ান। তার ঠাণ্ডা মাথার নেতৃত্ব পুরো আসর জুড়েই প্রশংসা কুড়িয়েছে। ফাইনালে ভারতের ক্ষুরধার বোলিংয়ে দল যখন হারের দ্বারপ্রান্তে, তখন মেজাজ ঠাণ্ডা রেখে ভারতের বোলারদের সামলেছেন সাবধানে। ৭৭ বলের মোকাবেলায় ৪৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন আকবর।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 


Related Articles

আকবরদের মত ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা চায় অনূর্ধ্ব-১৯ দল

১৫ বছর না হলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে দেবে না আইসিসি

সিলেটে ক্যাম্প করবে অনূর্ধ্ব-১৯ দল

অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ক’রোনা উপসর্গ, বন্ধ অনুশীলন

বিশ্বকাপজয়ী অনূর্ধ্ব-১৯ দলের নতুন স্কোয়াড ঘোষণা