Scores

দিনশেষে টাইগারদের কাঠগড়ায় নিজেরাই

ওয়ানডে সিরিজে ধবলধোলাই হওয়ার পর এই অনভ্যস্ত কন্ডিশনে টেস্ট সিরিজ, তাও প্রথম ম্যাচেই টস ভাগ্য বিপক্ষে। প্রথমে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের দারুণ শুরু দেখে অবাক হচ্ছিলেন অনেকেই। যদিও অবাক হওয়ার মাত্রা দ্বিগুণ হয়েছে হুট করে ব্যাটিং অর্ডারকে তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়তে দেখে।

দিনশেষে টাইগারদের কাঠগড়ায় নিজেরাই

দিনের খেলা শেষে নিউজিল্যান্ডকে এগিয়ে থাকতে দেখে টাইগারদের স্বভাবতই স্বস্তিতে থাকার কোনো কারণ নেই। সেঞ্চুরিয়ান তামিম ইকবাল এমন দশার জন্য নিজেদেরই দোষ দিচ্ছেন।

Also Read - ভেঙে পড়ার আগে তামিমের কাছে ‘স্বপ্নের মত শুরু’

তিনি ছাড়া বাকি ব্যাটসম্যানরা এদিন ছিলেন নিষ্প্রভ। তামিম মনে করেন, নিউজিল্যান্ড সফরকারীদের ভুলের অপেক্ষায় ছিল আর সেই ভুল করেই উইকেট বিলিয়ে এসেছেন টাইগার ব্যাটসম্যানরা।

তামিম বলেন, ‘আপনি যদি ওদের ডেলিভারিগুলো দেখেন… ওরা কিন্তু কোনো দারুণ বলে আউট হয়নি। ওদের যে প্ল্যান ছিল সেটাই ওদের সাফল্য দিয়েছে। আর আপনার ভুলের অপেক্ষায় ছিল।’

আর তাই তামিম দোষ দিচ্ছেন নিজেদেরকেই। একইসাথে আগামী দুইদিনের সুবিধা কাজে লাগিয়ে কোনোমতে ম্যাচে ফেরা যায় কি না, সেই আহ্বান যেন জানিয়ে রাখলেন প্রথম দিনের সুযোগ কাজে না লাগানোর আক্ষেপে, ‘দিন শেষে নিজেদেরকেই দোষ দেওয়ার আছে। কালকে আর পরশু সবচেয়ে ভালো দিন থাকবে উইকেট। যে একটু স্লোনেস আর একটু ডাবল পেস ছিল সেটা কেটে যাবে। তাই আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল যেন আমরা পুরোটা ব্যাটিং করতে পারি।’

নিউজিল্যান্ডের পেসার নেইল ওয়াগনারের বল যেন এদিন ‘গোলা’ হয়ে আসছিল বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের কাছে। কিউই এই পেসার একাই শিকার করেছেন ৫ উইকেট। তবে তার কৃতিত্বের চেয়ে উইকেট হারানোয় ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতাই বেশি দেখছেন তামিম।

তিনি বলেন, ‘আমার কাছে যেটা মনে হয় আমরা ভালো করতে করতে হঠাৎ করে ভুল করেছি। আজকে থেকে না পাঁচ বছর ধরেই আমরা জানি, ওয়াগনার এই কাজটাই করবে। এটা সামলাতে কে কী করবে, সেটা পরিকল্পনার ব্যাপার। অনেকে আছে পুল শট খেলতে পছন্দ করে, অনেকে আছে ‘ডাক’ করতে পছন্দ করে। আমার জন্য পরেরটা ছিল সহজ পথ, আমি সেটাই করেছি।’

Related Articles

ইঞ্জুরিতে রিচার্ডসন, বিশ্বকাপ স্বপ্নে ধাক্কা

ফিঞ্চ ঝড়ে ম্লান রিজওয়ানের শতক

অজিদের বিপক্ষে শেষ তিন ওয়ানডের পাকিস্তান দল ঘোষণা

টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ হলো শ্রীলঙ্কা

হাথুরুসিংহেকে চাকরি হারাতে হচ্ছে না!