SCORE

দুঃসময় পেছনে ফেলে দলে যোগ দিলেন ধনঞ্জয়া

উইন্ডিজদের বিপক্ষে খেলতে দল উড়াল দেবে ক্যারিবীয় অঞ্চলে। তিনি নিজেও ছিলেন দলে। নিচ্ছিলেন সফরের শেষমুহূর্তের প্রস্তুতি। তবে হুট করেই এমন সংবাদ শুনতে হবে, সেটি সম্ভবত কল্পনায়ও ভাবেননি শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। উইন্ডিজ সফরের প্রাক্বালে ধনঞ্জয়ার বাবা প্রাণ হারান অজানা ব্যক্তির গুলিতে।

দুঃসময় পেছনে ফেলে দলে যোগ দিলেন ধনঞ্জয়া
ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। ছবি: এএফপি

গত ২৩ মে এমন আকস্মিক ঘটনার পর দলের সঙ্গে তখন আর সফরে যাওয়া হয়নি ধনঞ্জয়ার। শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর দক্ষিণে মাউন্ট লাভিনিয়া অঞ্চলে আততায়ীর হাতে গুলিবিদ্ধ হন ধনঞ্জয়ার বাবা রঞ্জন ডি সিলভা। সাথে সাথে তাকে কালুবলয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় আহত হন আরও দুই ব্যক্তি।

ঐ ঘটনার পর সফর থেকে, তথা ক্রিকেট থেকেই দূরে ছিলেন ধনঞ্জয়া। দল অবশ্য ঠিকই গিয়েছে সফরে, এমনকি খেলেছে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও। পেশাদারিত্বের টানে এবার উইন্ডিজে পাড়ি জমাতে হল ধনঞ্জয়াকেও। সকল ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে বাবার অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুর বারো দিন পর দলের সাথে যোগ দিয়েছেন তিনি।

Also Read - কোচবিহীন চলছে হাই পারফরম্যান্স ইউনিটও

লঙ্কান বোর্ডের কর্তারা ভেবেছিলেন, এই সিরিজে ধনঞ্জয়াকে আর দলে পাবেন না তারা। তবে পেশাদারিত্বের টানে ধনঞ্জয়া যথারীতি দলের পাশে থাকছেন। অবশ্য দলের সাথে যোগ দিলেও ধনঞ্জয়া খেলতে পারবেন না তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে, যা শুরু হবে ৬ জুন থেকে। ১৪ জুন সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে মাঠে নামতে দেখা যেতে পারে তাকে।

উল্লেখ্য, রঞ্জন ডি সিলভা নিজ গ্রামের রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন। লাভিনিয়া সিটির নির্বাচিত কাউন্সিলর হিসেবে গত ফেব্রুয়ারিতে দায়িত্ব গ্রহণ করেন তিনি। তবে দায়িত্ব গ্রহণের মাত্র তিন মাসের মাথায় সন্ত্রাসীর গুলিতে পাড়ি জমাতে হয় ওপারে। ধারণা করা হচ্ছে, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরেই খুন হয়েছেন তিনি। শ্রীলঙ্কান প্রশাসন বেশ গুরুত্ব সহকারে হত্যা মামলাটি পরিচালনা করছে।

আরও পড়ুন: কিছুটা চাপে ছিল বাংলাদেশঃ লিটন

Related Articles

কুকের বদলি নিয়েই শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে ইংল্যান্ড

বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পণ

মিরাজ-মাশরাফির দৃঢ়তায় বাংলাদেশের সম্মানজনক সংগ্রহ

রশিদের চোখে ‘প্রেরণা ও তৃপ্তিদায়ক’ পারফরম্যান্স

ফখর জামানের কঠোর সমালোচনায় গাভাস্কার