দুর্নীতি মামলার ৮৫০ কোটি টাকা ফেরত পেল বিসিসিআই

0
532

দীর্ঘ ১০ বছর ধরে ঝুলে থাকা বিসিসিআইয়ের করা মামলার নিষ্পত্তি হলো অবশেষে। ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের করা মামলা জিতে ফেরত পাচ্ছে ৮৫০ কোটি টাকা।

Advertisment

করোনাভাইরাসের কারণে সব ধরণের ক্রিকেটই বন্ধ রয়েছে বিগত কয়েক মাস ধরে। এতে করে অনেক বড় লোকসানের মুখ দেখতে হয়েছে ক্রিকেট বোর্ডদের। তার মধ্যে সবচেয়ে বড় ক্ষতির আশঙ্কা ছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড, বিসিসিআইয়ের। কেননা করোনার কারণে এ বছর আইপিএল আয়োজন নিয়ে এখনো অনেক ধোঁয়াশা কাটেনি।

মূলত এক আইপিএল দিয়েই আর্থিকভাবে অনেক লাভবান হবে বিসিসিআই। আইপিএল হবে কী হবে না সেটা নিয়ে ধোঁয়াশা না কাটলেও আর্থিক সংকট কিছুটা হলেও পূরণ হচ্ছে বিসিসিআইয়ের। ১০ বছর আগে বিসিসিআইয়ের দায়ের করার মামলায় জয় জয় হয়েছে ক্রিকেট বোর্ডটির। এতে করে ফেরত পাচ্ছে ৮৫০ কোটি টাকা।

মূলত ২০১০ সালে তৎকালীন আইপিএল কমিশনার ললিত মোদি বিসিসিআইকে না জানিয়ে এশিয়ার বাইরে আইপিএল সম্প্রসারণের জন্য ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের সঙ্গে চুক্তি করেছিল। অবশ্য পরে বিসিসিআই বিষয়টি টের পেয়ে কমিশনারের পদ থেকে ললিতকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

তখন বিসিসিআই জানায় ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের সঙ্গে চুক্তির বিষয়ে কিছুই জানে না আইপিএল গভর্নিং বডি। যার কারণে চুক্তি থেকে বাদ দেওয়া হয় ওয়ার্ল্ড স্পোর্টসকে। এই ইস্যুতে বিসিসিআইয়ের এক কর্তা বলেন,

“২০১০ সালে চেন্নাই পুলিশের কাছে দুর্নীতির অভিযোগ জানিয়েছিল বিসিসিআই। আজ মামলার নিষ্পত্তির মাধ্যমে পরিষ্কার হয়ে গেলো, এই দুর্নীতির সাথে ললিত মোদির সঙ্গে ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের কয়েকজনও যুক্ত ছিলেন।”

দুর্নীতির মামলায় জয় হওয়ায় ৭ বছরের সুদ সহ মোট ৮৫০ কোটি পাচ্ছে বিসিসিআই।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।