Scores

“দোয়া করবেন যেন ক্যান্সার না হয়”

হুট করে একটি টিউমার মোশাররফ রুবেলের জীবনকে করে দিয়েছে এলোমেলো। জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার যথারীতি ব্যস্ত ছিলেন ক্রিকেট নিয়েই। এরই মধ্যে হুট করে পান ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হওয়ার খবর। তড়িঘড়ি করে এখন চলছে চিকিৎসার প্রক্রিয়া।

“দোয়া করবেন যেন ক্যান্সার না হয়”- মোশাররফ রুবেল

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে বৃহস্পতিবারই (১৪ মার্চ) সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বেন রুবেল, যেখানে হবে তার চিকিৎসা। বিডিক্রিকটাইমের সিনিয়র প্রতিবেদক নাজমুস সাকিবকে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে জাতীয় দলের সাবেক এই ক্রিকেটার চাইলেন দোয়া, কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন তাদের প্রতি যারা পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এই ঘোর দুঃসময়ে।

Also Read - বিশ্বকাপে যাওয়া যাবে কোকা-কোলা খেয়ে!

রুবেলের ব্রেন টিউমার এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে থাকলেও এসব টিউমার থেকে ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি থাকে। রুবেলের সেই ঝুঁকি কমই বলা চলে। বিপদ যেন বেশি ঘনীভূত না হয় এজন্য দোয়া চেয়েছেন সবার কাছে। রুবেল বলেন-

‘ইনশাআল্লাহ্‌ দ্রুতই সুস্থ হয়ে যাবো। সার্জারির পর বায়োপসি রিপোর্টটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। সবাই দোয়া করবেন যেন ক্যান্সার বা ওরকম কিছু না হয়। তাহলে হয়ত সুস্থতা পেতে আরও বিলম্ব হবে। ব্রেন থেকে (টিউমার) পুরোটা তো ফেলে দেওয়া যায় না। ব্রেনের অনেক সেলস আছে, আরও অনেককিছু আছে। ওগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হলে আবার শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। ওরা সেই অনুযায়ীই চিকিৎসা করবে। যতটুকু থেকে যাবে ওটা রেডিওথেরাপি বা কেমোথেরাপি দিয়ে নির্মূল করবে।’

তিনি বলেন, ‘যদি প্রাথমিক অবস্থায় থাকে বা ক্যান্সারের মত কিছু না হয় তাহলে আশা করি খুব দ্রুতই ফেরা যাবে। এরপর তিনমাস পর আবার ফলোআপে যেতে হবে। তারপর আশা করি সুস্থ হয়ে যাবো ইনশাআল্লাহ্‌।’

“দোয়া করবেন যেন ক্যান্সার না হয়”- মোশাররফ রুবেল

বিপিএল চলাকালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের এই ক্রিকেটার টের পেয়েছিলেন বিপদ সম্পর্কে। যদিও তখন ঘুণাক্ষরেও ভাবেননি, জটিলতা এত বড় পর্যায়ের। কীভাবে ধরা পড়ল টিউমারের অস্তিত্ব তা জানিয়ে রুবেল বলেন, ‘বিপিএল চলাকালে ঘুমের মধ্যে খিঁচুনি হয়েছিল অনেক। আমি কিছুই বলতে পারি না। আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হল। চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে যাই। এক মাস পর বাসায় আবার খিঁচুনি হয়। কাঁধ বেঁকে যায়। যার কারণে প্রিমিয়ার লিগের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলতে পারিনি। তখন ডাক্তারকে দেখাই। ডাক্তারও ধরতে পারেনি কী হয়েছে। মনোবিদও দেখিয়েছি। মনোবিদ বললেন আবার নিউরোলোজিস্ট দেখান। আবার নিরোলোজিস্ট দেখানোর পর ডাক্তার এমআরআই করতে বললেন। রিপোর্ট দেখে ডাক্তার বলল লো গ্রেড গ্লাইয়োমা। তারপর তো যেটা হওয়ার সেটাই আরকি।’

আকস্মিক এই ঝড়ে রুবেলকে যেন পিছু হটতে হল! একরাশ হতাশা নিয়ে বলছিলেন, ‘সামনের দিক থেকে হঠাৎ করে পেছনে হাঁটার মত হল আরকি। পরিকল্পনা ছিল কবে ফিট হবো, প্রিমিয়ার লিগ শুরু হয়ে গেছে, ম্যাচ খেলতে হবে। সবাই ফোন দিয়েছে- কবে ফিট হবো, ম্যাচ খেলতে পারবো। বলেছিলাম- কয়েকটা ম্যাচ হয়ত যাবে, এর মধ্যে ফিট হয়ে যাবো। টিউমারের কথা জানার পর সাথে সাথে সিদ্ধান্ত নেই চিকিৎসার। এখন সেই প্রক্রিয়াই চলছে। আজকে ভিসা পেয়ে যাওয়ার কথা। পেয়ে গেলে হয়ত কালই চলে যাবো।’

“দোয়া করবেন যেন ক্যান্সার না হয়”- মোশাররফ রুবেল

রুবেলের এই দুঃসময়ে এগিয়ে এসেছে ক্রিকেট অঙ্গন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে আর্থিক সহায়তার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। এগিয়ে এসেছেন সাবেক-বর্তমান ক্রিকেটাররাও। সতীর্থরা নিয়মিত সাহস যুগিয়ে চলেছেন। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে রুবেল জানান, ‘বিসিবিকে আমি ধন্যবাদ দিতে চাই। বোর্ড থেকে আমার সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করা হচ্ছে। সিইও সুজন ভাই আমাকে ফোন দিয়েছেন। কাল রাত সাড়ে দশটায়ও কথা হয়েছে। ওখানে গিয়ে কোথায় যোগাযোগ করবো, কার সাথে যোগাযোগ করবো এসবও বলে দিয়েছেন। আকরাম ভাইও ফোন দিচ্ছেন। সিনিয়র খেলোয়াড়রাও… সাকিব পাপন ভাইকে ফোন দিয়েছে। ম্যাশ ওখান (বিদেশ সফরে রয়েছেন) থেকে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে। নিউজিল্যান্ড থেকে রিয়াদ যোগাযোগ করছে। তামিম ম্যাসেজ পাঠাচ্ছে- কোনো চিন্তা করবেন না, সাহস রাখেন, ইনশাআল্লাহ্‌ কিচ্ছু হবে না, সব দ্রুতই ঠিক হয়ে যাবে। বেশিরভাগের সাথেই ম্যাসেজে কথা হচ্ছে।’

সবার সমর্থনে অসুস্থ রুবেল আপ্লুত। আর্থিক কিংবা মানসিক সমর্থন যেন তাকে তাড়না দিচ্ছে দ্রুত সুস্থ হয়ে মাঠে ফেরার। ৩৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের ভাষ্য, ‘সবাই যেভাবে সাড়া দিয়েছে আমি সত্যিই আপ্লুত আসলে। দলগুলো থেকেও খুব সাপোর্ট দিচ্ছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, গাজী ট্যাংকস, খুলনা টাইটান্স- সবাই যেভাবে কন্ট্রিবিউট করছে। আমি মনে করি আমার উপর ওরকম চাপ পড়বে না।’

“দোয়া করবেন যেন ক্যান্সার না হয়”- মোশাররফ রুবেল

‘ট্রিটমেন্টের এমাউন্টটা তো বড়। একসাথে জোগাড় করাও কঠিন। সবাই যেভাবে কন্ট্রিবিউট করছে আশা করি আমার উপর অতো চাপ পড়বে না। এরকম ভালোবাসা পাবো তা আমার কল্পনাতেও ছিল না। আমার ভক্ত যারা রয়েছেন, সতীর্থ, বন্ধু, পরিবার… তাদের দোয়া-ভালোবাসায় ইনশাআল্লাহ্‌ দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবো। দ্রুত মাঠে ফিরবো- এটাই আশা করছি।’– বলেন তিনি।

রুবেলকে সুস্থ দেখতে যারা এগিয়ে এসেছেন- তাদের ঋণ শোধ করার কথা বলেও পরক্ষণে আবার জানালেন- এ তো সম্ভব নয়! তবে আসলে সম্ভব ঠিকই। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ৫টি ওয়ানডে খেলা ক্রিকেটার সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরে পুরনো রুবেল হয়ে ধরা দিলেই সেটি যে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি হবে তার ভক্ত, শুভাকাঙ্ক্ষী, বন্ধু, পরিবার, সতীর্থ, বোর্ড তথা ক্রিকেট অঙ্গনের সবার জন্য!

Related Articles

দেখুন জন্মদিনে সাকিবকে মেয়ে আলাইনার চমক

ডিপিএলে সোমবার মাঠে নামছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী

রুমানাকে ‘সেরার স্বীকৃতি’ ক্যাপ দিলো আইসিসি

সৌম্য-লিটনদের ধারাবাহিকতা নেই কেন?

সাকিব আল হাসানের জানা-অজানা গল্প