দ্বিতীয় দিন শেষে ৪১৯ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ

0
972

দক্ষিণ আফ্রিকার রান পাহাড়ের জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসের শুরু থেকেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে সফরকারী বাংলাদেশ। সৌম্য সরকারকে দিয়ে শুরু হওয়া সাজঘরে ফেরার তালিকায় একে-একে যোগ দেন মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

দ্বিতীয় দিন শেষে ৪১৯ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ

Advertisment

চা পানের বিরতির আগে চার উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া টাইগারদের বিপর্যয়টা আরো বেড়ে যায় চা বিরতির পর মাঠে নেমে। ইমরুল কায়েস ইনিংসের শুরু থেকে লড়াই চালিয়ে গেলেও এই যাত্রায় বিপর্যয়ের শুরু হয় তাঁকে দিয়েই। ২৬ রান করে দলীয় ৬১ রানের সময় ইমরুল কায়েস রাবাদার শিকারে পরিণত হয়ে ফিরে গেলে লিটনের সাথে জুটি গড়েন সাব্বির রহমান। কিন্তু রানের খাতা খোলার আগেই সাব্বিরকে প্যাভিলয়নে ফিরে যেতে হলে ফলো-অন থেকে বাঁচার শেষ আশাটুকুও হারায় বাংলাদেশ।

এরপর লিটন দাশ ক্রিজের এক প্রান্ত আগলে ধরে ব্যাট করে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় অর্ধশতক তুলে নিলেও তা ফলো-অনের ব্যবধান কমানো ছাড়া আর কিছু করতে পারেনি। ব্যক্তিগত ৭০ রানে রাবাদার চতুর্থ শিকারে পরিণত হলে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসের স্কোর সব আশা শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত স্কোরবোর্ডে ১৪৭ রান যোগ করে সবকয়টি উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে রীতিমত সফরকারী ব্যাটসম্যানদের অগ্নি পরীক্ষা নেওয়া প্রোটিয়া পেসার কাগিসো রাবাদা ৫টি, অলিভার ৩টি তাছাড়া মহারাজ ও পারনেল প্রত্যাকে একটি করে উইকেট পান।

ফলো-অনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে আবারো ব্যাট করতে নামতে হয় ইমরুল ও সৌম্যকে। তবে আলো স্বল্পতার জন্য বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে ১.২ ওভারের বেশি খেলা মাঠে গড়ায়নি। যার ফলে দ্বিতীয় ইনিংসে স্কোরবোর্ডে কোন উইকেট না হারিয়ে ৭ রান তুলে দিন শেষ করে সফরকারীরা। এর ফলে, ৬ রান নিয়ে অপরাজিত থাকে ইমরুল কায়েস আগামীকাল আবারো তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন ১ রানে অপরাজিত থাকা আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকারের সাথে।

উল্লেখ্য, এর আগে আগের দিনের ৩ উইকেটে ৪২৮ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করার পর হাশিম আমলার ২৮তম শতকের সাথে দলপতি ডু প্লেসিসের শতকে ভর করে প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেটের বিনিময়ে স্কোরবোর্ডে ৫৭৩ রানের বিশাল সংগ্রহ যোগ করে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিক প্রোটিয়ারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ৫৭৩/৪ ডিক্লেয়ার
মারক্রাম ১৪৩, ডু প্লেসিস ১৩৫*, আমলা ১৩২, এলগার ১১৩, ডি কক ২৮*; শুভাশিষ ১১৮/৩, রুবেল ১১৩/১

বাংলাদেশঃ ১৪৭/১০ (লিটন ৭০, কায়েস ২৬; রাবাদা ৩৩/৫, অলিভার ৪০/৩)

দ্বিতীয় ইনিংস-

বাংলাদেশঃ ৭/০ (কায়েস ৬*, সৌম্য ১*)