দ্বিতীয় পর্বেও স্থানীয় ব্যাটসম্যানদের রাজত্ব

দ্বিতীয় পর্বেও স্থানীয় ব্যাটসম্যানদের রাজত্ব।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসরের প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও রাজত্ব করেছে বাংলাদেশের স্থানীয় ক্রিকেটাররা। চট্টগ্রাম পর্ব শেষেও তাই সর্বাধিক রান সংগ্রাহকের শীর্ষ পাঁচে বিদেশী তারকা ক্রিকেটারদের ছাপিয়ে অবস্থান করছে বাংলাদেশের স্থানীয় ব্যাটসম্যানরা। তবে প্রথম পর্বের পর শীর্ষ পাঁচে রদবদল ঘটেছে কিছুটা।

Advertisment

শাহরিয়ার নাফীসকে হটিয়ে সর্বাধিক রান সংগ্রাহকের তালিকার শীর্ষস্থান নিজের দখলে নিয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটসের মারকুটে ব্যাটসম্যান মেহেদী মারুফ। ৭ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৪০.৬৬ গড়ে ১৫১.৫৫ স্ট্রাইক রেটে তাঁর সংগ্রহ ২৪৪ রান। এ রান করতে এ ব্যাটসম্যান খেলেছেন ২৪ টি চার ও ১৩টি ছয়ের ইনিংস। তাঁর পরে তালিকায়  মুশফিকুর রহিমের অবস্থান। শীর্ষ পাঁচ সংগ্রাহকের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকলেও সবচেয়ে বেশি গড়ের (৫৯) রেকর্ড রয়েছে বরিশাল বুলসের অধিনায়কের দখলে।

সাত ম্যাচ খেলে দুই অর্ধশতকের সাহায্য চলতি আসরে এখনো পর্যন্ত মুশফিকুর রহিমের সংগ্রহ ২৩৬ রান। তাঁর পরেই তালিকায় রয়েছে বরিশাল বুলসের আরেক ব্যাটসম্যান শাহরিয়ার নাফীস।

প্রথম পর্ব শেষে তালিকার শীর্ষে থাকলেও আপাতত তৃতীয়স্থানে রয়েছেন নাফীস। সাত ম্যাচ থেকে নাফীসের সংগ্রহ ২২৫ রান। তাঁর থেকে ঠিক ২ রান কম অর্থাৎ ২২৩ রান নিয়ে সর্বাধিক রান সংগ্রাহকের চতুর্থস্থানে অবস্থান করছেন তামিম ইকবাল। তবে তামিম ম্যাচ খেলেছেন একটি বেশি, ৮ ম্যাচ খেলে এ রান সংগ্রহ করেছেন এ ব্যাটসম্যান। ২৭ গড়ে ২২৩ রান করা তামিমের স্ট্রাইকরেটটা আশ্চর্যজনক ভাবে কিছুটা কম ১১২.৬২।

তালিকার পঞ্চমস্থানে রয়েছেন ‘পকেট ডায়নামো’খ্যাত মুমিনুল হক। ৭ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৩৬ গড়ে ২১৬ রান করেছে বাঁ-হাতি এ ব্যাটসম্যান। চার-ছয়ে গ্যালারি মাতিয়ে আসরে এখনো পর্যন্ত ২ টি ছয় হাঁকানোর পাশাপাশি ২৬ টি চার মেরেছেন। সেই সাথে আসরে সর্বাধিক তিন-তিনটি অর্ধ-শতকের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। তাঁর সাথে অবশ্য এ যাত্রায় ৩ টি অর্ধ-শতক করে শাহরিয়ার নাফীসও সর্বাধিক অর্ধ-শতক করার ক্ষেত্রে ভাগ বসিয়েছেন।

-ইমরান হাসান, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম ডট কম